সন্তানদের ঝগড়া থামাতে

কাছাকাছি বয়সি দুই ভাই বা ভাই-বোনদের মধ্যে ঝগড়া খুবই স্বাভাবিক একটি বিষয়। তবে সন্তানদের মধ্যে যদি ঝগড়ার পরিমাণ একটু বেড়ে যায় তাহলে এর সমাধান নিয়ে ভাবতে হবে।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Oct 2016, 02:05 PM
Updated : 17 Oct 2016, 09:39 AM

শিশুরা বিভিন্ন কারণে নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করে। এমন পরিস্থিতিতে অনেক সময় মা-বাবা সন্তানদের মধ্যে সমস্যার সমাধান করে দেন। অবার অনেক ক্ষেত্রে শিশুরা নিজেরাই দিজেদের সমস্যা সমাধান করতে পারে।

তবে কখনও কখনও সমস্যা বেশ ঘোলাটে হয়ে যায়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছোটখাটো কারণেই ভাই বোনদের মধ্যে ঝগড়া বেঁধে যেতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে ঘন ঘন ঝগড়া হওয়ার কারণ খুঁজে বের করতে হবে।

লাইফস্টাইলবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে সন্তানদের ঝগড়ার কারণ বের করে তার সমাধানের পরামর্শ দেওয়া হয়। এখানে শিশুদের মধ্যে বারবার ঝগড়া হওয়ার বিভিন্ন কারণ ও তা সমাধানের কিছু দিক তুলে ধরা হয়।   

সন্তানদেরও নিজস্ব কিছু সময় দরকার: আমাদের সমাজে সমবয়সি দুই ভাই বা দুই বোনের জন্য একটি ঘরই বরাদ্দ থাকে। একই ঘর, বিছানা, পড়ার টেবিল সবই তাদের ভাগ করে ব্যবহার করতে হয়। তবে এই পরিস্থিতিগুলো অনেক সময় ঝগড়ার সূত্রপাত ঘটায়। তাই একই ঘর হলেও বিছানা, টেবিল এবং আলাদা খেলনার ব্যবস্থা করা সম্ভব হলে তাই করুন। সম্ভব হলে ঘর দুই ভাগ করে তাদের পছন্দ মতো রংয়ে রাঙিয়ে দিন। এই সহজ জিনিসগুলো ঝগড়া অনেকটা কমিয়ে আনতে সাহায্য করবে।

 দূরের যাত্রায় ক্লান্ত সন্তানরা বেশি ঝগড়া করে: দূরের যাত্রায় ক্লান্ত এবং ক্ষুধার্ত অবস্থায় শিশুদের মধ্যে বেশি ঝগড়া হতে পারে। এক্ষেত্রে তাদের আলাদা খেলনা, বই বা রং করার বই দেওয়া যেতে পারে। এতে তারা নিজেদের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকবে।

ছোট ভাই বা বোনকে দেখার দায়িত্ব বড় সন্তানের নয়: আপনার বড় সন্তান তার ছোট ভাই বা বোনকে আদর করবে ভালোবাসবে এটাই স্বাভাবিক। তাই বলে সব সময় তাদের দেখেশুনে রাখার দায়িত্ব তার নয়। যদি সব সময় শুধু বড় সন্তানের উপর এই দায়িত্ব চাপিয়ে দেওয়া হয় তাহলে তা ভাই-বোনের সম্পর্কে তিক্ততা তৈরি করতে পারে।

নিজেদের সমস্যা সমাধান করতে শেখান: সন্তানদের নিজের সমস্যা সমাধান করতে শেখাতে হবে। এক্ষত্রে তাদের আগ্রহ বাড়াতে উপহারের ব্যবস্থা করতে পারেন। তাদের বলুন, যে আগে কাজটি করবে তাকেই উপহার দেওয়া হবে।

মায়েরা মাথা ঠাণ্ডা রাখুন: সন্তানদের ঝগড়া যখন আকাশচুম্বি, তখন মায়েদের পক্ষে মাথা ঠাণ্ডা রেখে তাদের সামলানো বেশ দুষ্কর। অনেক সময় সন্তানদের গায়েও হাত তুলে বসেন অনেকে। এই কাজগুলো করা যাবে না। তাদের জোরে বকা দিয়ে শান্ত করার চেষ্টা করতে পারেন অথবা অন্য কোনো ভাবে টেবিলে জোরে বাড়ি দিয়ে বা বালিশ-কুশন জোরে মেঝেতে ফেলেও শাসন করতে পারেন।

ছবির মডেল: শামিম, শেরহান, সানায়া ও শায়লা। ছবি: আসাদুজ্জামান প্রামানিক

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক