এক সময় অক্ষয়কেও কাঁদতে হয়েছিল

লাগাতার ফ্লপের ভিড়ে তিন দশক আগের এই ঘটনা প্রকাশ পেল।

গ্লিটজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Nov 2022, 12:20 PM
Updated : 19 Nov 2022, 12:20 PM

বক্স অফিসে দিন ভালো যাচ্ছে না বলিউড তারকা অভিনেতা অক্ষয় কুমারের। পরপর তিনটি সিনেমায় ভরাডুবির মধ্যে জানা গেল তিন দশক আগেও এমনই এক দুঃসময়ে এই অভিনেতার ভাগ্যে কী ঘটেছিল।

বলিউড হাঙ্গামা জানায়, মহমারীর দ্বিতীয় বছর ২০২১ সালে অক্ষয়ের শুরুটা ভালো হয়েছিল। নির্মাতা রোহিত শেঠির পরিচালনায় ‘সূর্যবংশী’ দিয়ে ‘হিটের’ খাতায় নাম লেখান অক্ষয়। ভাবা হয়েছিল বদলে যাওয়া দিনে অক্ষয় বলিউডে আনছেন সুবাতাস।

কিন্তু তার অভিনীত ‘বচ্চন পান্ডে’, ‘রক্ষা বন্ধন’, ‘সম্রাট পৃথ্বীরাজ’ তাকে ডুবিয়েছে। এখন তার একমাত্র ত্রাতা হল ‘রাম সেতু’।

এরমধ্যে পরিচালক সুনীল দর্শনের একটি সাক্ষাৎকারে জানা গেল, ক্যারিয়ারে অক্ষয় এর আগেও ব্যর্থতার মুখ দেখেছেন। এবং সে সময়ে নানা ধরনের ঘাত-প্রতিঘাতের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে এই অভিনেতাকে। এমনকি নব্বইয়ের দশকের শেষ প্রান্তে এসে টানা ফ্লপ সিনেমার জন্য একবার এক প্রযোজকের তীর্যক কথায় অপমানে কেঁদে ফেলেছিলেন তিনি।

সুনীল দর্শন নির্মিত অক্ষয়ের ‘জানোয়ার’ সিনেমা মুক্তির সময়কাল ছিল সেটি। পাশাপাশি আরও একটি সিনেমায় নাটকের ভূমিকায় ছিলেন তিনি। কিন্তু সিনেমার হোর্ডিংয়ে তার ছবিটিই বাদ দেয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান।

কেন এই আচরণ? জানতে চাইলে প্রযোজক নায়কে মুখের উপর বলে বসেন, “ছবিতে জায়গা হওয়ার মতো সামর্থ্য আছে আপনার?“

ওই ব্যবহার পেয়ে পরিচালক সুনীল দর্শনের কাছে এসে লজ্জায়, অপমানে কান্নায় ভেঙে পড়েন অক্ষয়।

সুনীলের ভাষ্য, “যখন কেউ ভাল করতে পারে না, সেসময় চারপাশের মানুষ তাকে আরও অতলে ঠেলে দেয় । অক্ষয়কে সেই পর্যায়েই নামিয়ে আনছিলেন তারা। সেটা ঠিক হচ্ছিল না। কারণ তিনি ওই সময়ের আগে থেকেই নায়ক।“

Also Read: ‘রাম সেতু’ নিয়ে বিজেপি নেতার হুমকিতে অক্ষয়

Also Read: অক্ষয় শোনালেন এক, ভক্তরা শোনাল আরেক

সুনীল তখন সিদ্ধান্ত নেন অক্ষয়কে তিনি হারতে দেবেন না। তিনি জানোয়ার সিনেমার প্রচারে হোর্ডিংয়ে একমাত্র অক্ষয়ের ছবি রাখার সিদ্ধান্ত নেন।

তিনি বলেন, “আমি সিনেমার ব্যানারের নকশাকার রাহুল আর হিমাংশু নন্দার কাছে গিয়ে বলি আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে জুহুতে ‘ব্যালকিট ব্যানার’ টানাতে হবে। যা অত্যন্ত ব্যয়বহুল।

“ওই ব্যানারের সিনেমায় নায়িকা কারিশমা কাপুর ও শিল্প শেঠিকে রাখা হয়নি। সেটাও আমার সিদ্ধান্ত।”

পরিচালক বলেন, “আমি ভেবেছিলাম ব্যানারটি অভিনেতাকে উত্সর্গ করা উচিত কারণ একজন অভিনেতার আত্মবিশ্বাসী হওয়া প্রয়োজন, যা লোকেরা গুঁড়িয়ে দেওয়া চেষ্টা করছে।”

পরে অক্ষয় হয়ে ওঠেন হিটের প্রতিশব্দ। একের পর এক হিট সিনেমা বলিউডে দিয়ে যান তিনি।

এদিকে এখন একেরপর এক ফ্লপ সিনেমার দায়ভার অক্ষয় নিজের কাঁধে নিয়েছেন। কিছুদিন আগে এক অনুষ্ঠানে অক্ষয় বলেছেন, ছবি না চলার সব দোষ তারই। তিনি মনে করছেন নিজেকে পরিবর্তন করতে হবে। দর্শকরা কী চাইছে, সেটা জানাতে হবে। মোট কথা তাদের রুচি অনুযায়ী তাকে কাজ করতে হবে।

এছাড়া অক্ষয় তার পারিশ্রমিকও কমিয়ে ধরছেন বলে খবর এসেছে।

কিছুদিন আগে ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও করে নতুন কিছু আসছে বরে ইঙ্গিত দেন অক্ষয়। এছাড়া অক্ষয় আগামী বছর টাইগার শ্রফের সঙ্গে ‘বড় মিয়া ছোট মিয়া’র শুটিং শুরু করবেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক