ট্রেইলার দিয়েই 'ট্রেন্ডিংয়ে' সাইফ-হৃতিকের বিক্রম বেদা

টি সিরিজের ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পেয়েছে সিনেমাটির ২ মিনিট ৫০ সেকেন্ডের ট্রেইলার।

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Sept 2022, 02:48 PM
Updated : 10 Sept 2022, 02:48 PM

বলিউডের বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা বিক্রম বেদার ট্রেইলার মুক্তির প্রথম দিনই নজর কেড়েছে সিনেমাপ্রেমীদের।

প্রথম দুই দিনে টুইটার ট্রেন্ডিংয়ের শীর্ষে উঠে এসেছিল এটি। বৃহস্পতিবার রাতে এটি প্রচারের পর এখন পর্যন্ত প্রায় ২০ হাজার টুইট হয়েছে সিনেমাটি নিয়ে। প্রযোজনা সংস্থা টি সিরিজ তাদের ফেইসবুক পোস্টে জানিয়েছে এ খবর।

‘আমরা বিশ্বাস করি, সব গল্পের দুইটা দিক থাকে। ভালো ও খারাপ। কিন্তু এ চিন্তা ভুল’- এমন সংলাপে শুরু হয়েছে বলিউডের এ বছরের প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘বিক্রম বেদা’ এর ২ মিনিট ৫০ সেকেন্ডের ট্রেইলার।

এতে ছবিটির মুক্তির তারিখও জানানো হয় ৩০ সেপ্টেম্বর। দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় সিনেমা ‘বিক্রম বেদা’ বলিউডে রিমেক হিসেবে নির্মাণ করা হচ্ছে। দুই প্রধান চরিত্রের নামেই করা হয়েছে সিনেমাটির নাম।

পুলিশ অফিসার মাধবন ও গ্যাংস্টার বিজয় সেতুপতির জায়গায় দেখা যাবে সাইফ আলী খান ও হৃতিক রোশনকে। পরিচালক দম্পতি পুষ্কর-গায়ত্রী তুমুল ব্যবসা সফল তামিল সিনেমাটির আগের নাম রেখেই রিমেক করছেন।

সাইফ আলি খানকে সেখানে দেখা যাবে পুলিশ অফিসারের চরিত্রে, নাম বিক্রম। অন্যদিকে গ্যাংস্টার চরিত্রে অভিনয় করা হৃতিকের নাম বেদা। আরও আছেন রাধিকা আপ্তে।

‘বেদা’ হয়ে হৃত্বিকের পর্দায় ফেরাকে আগ্রহের সঙ্গে নিচ্ছেন দর্শকেরা, তাকে আগামীতে দেখা যাবে ‘ফাইটার’ সিনেমাতেও। সাইফ আলী খানকেও গত বছর মুক্তি পাওয়া বান্টি অউর বাবলি ২ সিনেমার পর এই প্রথম দেখা যাবে।

ট্রেইলারে নজর কেড়েছে হৃতিকের গ্যাংস্টার দর্শনও। দক্ষিণী সংস্করণের সঙ্গে মিল রেখে ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকে দেওয়া হয়েছে বাড়তি আকর্ষণ।

গ্যাংস্টার হিসেবে হৃতিক, পুলিশ অফিসার সাইফ আলীর পুলিশগিরি আর রাধিকা আপ্তের সঙ্গে সাইফের প্রেম ও দ্বন্দ্বের রসায়ন জমে উঠেছে সিনেমায়। ট্রেইলারের কমেন্ট পড়েছে ১০ হাজারের মত।

গ্যাংস্টার হৃতিকের বুদ্ধিমত্তা ও তার চলনবলনের দিকে ইঙ্গিত করে এক দর্শক কমেন্টে লিখেছেন, ‘শিশুকালে আমরা নায়ককে ভালোবাসি। পরিণত বয়সে ভিলেনকে বুঝতে শিখি।’

বিক্রম বেদার গল্প বলিউড ছাড়িয়ে বাংলাদেশের দর্শকের কাছেও অতি পরিচিত।
এ সিনেমায় দেখা যায়, নিশ্চিত ‘এনকাউন্টারের’ হাত থেকে বাঁচতে একজন ঠাণ্ডা মাথার গ্যাংস্টার পুলিশ অফিসারকে একের পর এক গল্পের ফাঁদে ফেলছেন।
ট্রেইলারে কিছুটা বোঝা যাচ্ছে, তামিল সংস্করণের মতই হিন্দি রিমেকের এ ছবিতে পরতে পরতে রয়েছে রহস্য, অ্যাকশন আর টানটান উত্তেজনা।

সিনেমায় পুলিশ অফিসার গ্যাংস্টার বেদাকে ধরতে অভিযান শুরু করে। ইঁদুর-বিড়াল খেলা অন্যদিকে মোড় নেয়, যখন গ্যাংস্টার স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করে। এরপর সে পুলিশ অফিসারকে তার জীবনের পেছনের গল্প বলা শুরু করে; চ্যালেঞ্জ করে বসে ভালো-মন্দের গতানুগতিক ধারণাকে। বদলে যায় পুলিশ অফিসারের দৃষ্টিভঙ্গি।

আমির খানের হলিউড সিনেমা ফরেস্ট গাম্পের রিমেক লাল সিং চাড্ডা যেখানে বক্স অফিস মুখ থুবড়ে পড়েছে; বিক্রম বেদা কেমন করবে তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করতেও দেখা যায় দর্শকদের। বিজয় সেতুপতির চরিত্র পুরোপুরি ফুটিয়ে তোলাটাও হৃতিকের জন্য চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক