প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ার আশা ডলি সায়ন্তনীর

ডলি বলেন, “আমার ফল্ট ছিল। কারো ষড়যন্ত্রে মনোনয়নপত্র বাতিল হয়নি।”

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Dec 2023, 11:26 AM
Updated : 5 Dec 2023, 11:26 AM

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম) থেকে পাবনা-২ (সুজানগর-বেড়ার একাংশ) আসনে জমা দেওয়া মনোনয়নপত্র বাতিল হলেও হাল ছাড়ছেন না কণ্ঠশিল্পী ডলি সায়ন্তনী।

মনোনয়নপত্র বাতিল করে রিটার্নিং কর্মকর্তার দেওয়া আদেশের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার নির্বাচন ভবনে আপিল করতে এসে সাংবাদিকদের ডলি বলেন, “আমার ফল্ট ছিল। কারো ষড়যন্ত্রে মনোনয়নপত্র বাতিল হয়নি।

“আমার ছোট একটা ক্রেডিট কার্ডের ঝামেলা ছিল, যেটা আমার নলেজে ছিল না। বাচ্চা বাইরে পড়াশুনা করে সেজন্য দেশের বাইরে যাওয়া-আসা করা লাগে। ক্রেডিট কার্ডের অ্যামাউন্ট পরিশোধ করে ইসিতে এসেছি।”

কত টাকা বকেয়া ছিল-এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, "খুব কম টাকা, বলার মতো না। যে অভিযোগটা এসেছে এটা আসলেই আমার ফল্ট ছিল। কারোর ষড়যন্ত্র দেখছি না। এটা আমি খেয়াল করি নাই। তবে আমি আশা করছি, ইনশা-আল্লাহ আমি আমার মনোনয়নপত্রের বৈধতা পাব।”

তবে প্রক্রিয়াগত কিছু জটিলতার কারণে এদিন তিনি আপিল আবেদন জমা দেননি।

বুধবার আপিল জমা দেবেন বলে জানান তিনি। 

এদিকে মনোনয়নপত্র বাতিলে রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রথমদিন ইসিতে আপিল জমা পড়েছে ৪২টি। এর মধ্যে ২৬টি স্বতন্ত্র প্রার্থীদের।   

Also Read: ঋণ খেলাপি: ডলি সায়ন্তনীর মনোনয়ন বাতিল

Also Read: পাবনায় মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ডলি সায়ন্তনী

Also Read: বিএনএমে যোগ দিয়ে ভোটের মঞ্চে ডলি সায়ন্তনী

ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ জানিয়েছেন, ৩০০ আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল হয়েছিল দুই হাজার ৭১৬টি। এর মধ্যে বাছাইয়ের সময় রিটার্নিং কর্মকর্তারা বাতিল করেছেন ৭৩১টি।

আগামী ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রার্থীরা রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন। আর ১০ থেকে ১৫ ডিসেম্বর আপিল নিষ্পত্তি করবে নির্বাচন কমিশন। 

প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৭ ডিসেম্বর। রিটার্নিং কর্মকর্তারা প্রতীক বরাদ্দ করবেন ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনি প্রচার চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। আর ভোট হবে ৭ জানুয়ারি।