পাকিস্তান বিশ্বকাপ দলে নেই ফখর, নতুন মুখ মাসুদ

হাঁটুতে চোট পাওয়া অভিজ্ঞ এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানকে রাখা হয়েছে রিজার্ভ হিসেবে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Sept 2022, 02:40 PM
Updated : 15 Sept 2022, 02:40 PM

টেস্ট ও ওয়ানডেতে পাকিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করা শান মাসুদ প্রথমবার ডাক পেলেন টি-টোয়েন্টিতে। পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দলে জায়গা হয়েছে টপ অর্ডার এই ব্যাটসম্যানের। তবে চোটের কারণে বৈশ্বিক আসরের জন্য বিবেচনায় রাখা হয়নি অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ফখর জামানকে।

এশিয়া কাপের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফিল্ডিংয়ের সময় হাঁটুতে চোট পান ফখর। পরে অবশ্য ব্যাটিংয়ে নামলেও বোল্ড হয়ে যান প্রথম বলেই। ওই চোটে জায়গা হলো না তার অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপ দলে।

ফর্মও ভালো ছিল না ফখরের। চলতি বছর ৭ ম্যাচে ১৩.৭১ গড়ে রান করেছেন ৯৬। ফিফটি করতে পেরেছেন একটি, এশিয়া কাপে হংকংয়ের বিপক্ষে। এই সময়ে তার স্ট্রাইক রেট ছিল ১০২.১২।

রিজার্ভ হিসেবে অবশ্য রাখা রয়েছে টপ অর্ডার এই ব্যাটসম্যানকে। তার সঙ্গে ওই তালিকায় আছেন মোহাম্মদ হারিস ও শাহনওয়াজ দাহানি।

বিশ্বকাপের জন্য বৃহস্পতিবার ঘোষিত দলে রাখা হয়েছে হাঁটুর চোট থেকে সেরে ওঠার পথে থাকা শাহিন শাহ আফ্রিদিকেও। গত জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টে ফিল্ডিংয়ের সময় হাঁটুর লিগামেন্টে চোট পান এই পেসার। এশিয়া কাপে খেলতে পারেননি তিনি। এখন পুনর্বাসনের জন্য আছেন লন্ডনে।

এই দলই খেলবে বিশ্বকাপের আগে নিউ জিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে। যেখানে আরেক দল বাংলাদেশ। আগামী ৭ থেকে ১৪ অক্টোবর হবে মাঠের লড়াই।

এর আগে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৭ টি-টোয়েন্টির সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া সিরিজের জন্য এদিন ১৮ সদস্যের দলও দিয়েছে তারা। সেই দলেও নেই ফখর ও আফ্রিদি।

২১ বছর বয়সী পেসার ওয়াসিম শুরুতে এশিয়া কাপের দলে ছিলেন। কিন্তু আসর শুরুর আগে সাইড স্ট্রেইন চোটে পড়ে ছিটকে যান তিনি। সেরে ওঠায় বিশ্বকাপ দলে রাখা হয়েছে তাকে। এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের হয়ে ১১ টি-টোয়েন্টি খেলে ওভার প্রতি আটের একটু বেশি রান দিয়ে ১৭ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি দলে নতুন মুখ মাসুদ ২০১৩ সালে টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক আঙিনায় পা রাখেন। ৬ বছর পর হয় তার ওয়ানডে অভিষেক। এবার আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টির স্বাদ পাওয়ার অপেক্ষায় তিনি।

স্বীকৃত টি-টোয়েন্টির পরিসংখ্যান ভালোই সমৃদ্ধ বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের। ১১৬ ম্যাচে খেলে এই সংস্করণে ১২৬.৩২ স্ট্রাইক রেটে ১ সেঞ্চুরি ও ২০ ফিফটিতে করেছেন ২ হাজার ৯৮৫ রান।

ইংল্যান্ড সিরিজের দলে রাখা হয়েছে পেস বোলিং অলরাউন্ডার আমির জামাল ও বাঁহাতি পেসার আবরার আহমেদ। দুইজনই আছেন আন্তর্জাতিক অভিষেকের অপেক্ষায়।

আগামী ২৩ অক্টোবর শুরু হবে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ অভিযান। মেলবোর্নে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে।                                                

পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দল: বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান, আসিফ আলি, হায়দার আলি, হারিস রউফ, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাসনাইন, মোহাম্মদ নওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, নাসিম শাহ, শাহিন শাহ আফ্রিদি, শান মাসুদ ও উসমান কাদির।

রিজার্ভ: ফখর জামান, মোহাম্মদ হারিস, শাহনওয়াজ দাহানি।

ইংল্যান্ড সিরিজের পাকিস্তান দল: বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান, আমির জামাল, আবরার আহমেদ, আসিফ আলি, হায়দার আলি, হারিস রউফ, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হারিস, মোহাম্মদ হাসনাইন, মোহাম্মদ নওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, নাসিম শাহ, শাহনওয়াজ দাহানি, শান মাসুদ ও উসমান কাদির।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক