ইব্রাহিমের প্রথম সেঞ্চুরিতে আফগানিস্তানের লড়াই

ব্যাটে-বলে দারুণ পারফরম্যান্সে তৃতীয় দিন নিজেদের করে নিয়েছে আফগানরা।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Feb 2024, 01:28 PM
Updated : 4 Feb 2024, 01:28 PM

প্রথম ইনিংসে রানের খাতা খুলতে না পারা ইব্রাহিম জাদরান এবার দারুণ নৈপুণ্য দেখালেন। বুদ্ধিদীপ্ত ব্যাটিং আর চোয়ালবদ্ধ দৃঢ়তায় দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি করে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়লেন তিনি। সঙ্গে টপ অর্ডারের বাকি দুই ব্যাটসম্যানের কার্যকর ইনিংসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জবাবটা ভালোই দিচ্ছে আফগানিস্তান।

কলম্বোতে দুই দলের একমাত্র টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৪৩৯ রান করে ২৪১ রানের বিশাল লিড নেয় শ্রীলঙ্কা। প্রথম ইনিংসে ১৯৮ রানে গুটিয়ে যাওয়া আফগানরা এবার লড়ছে চোখে চোখ রেখে। দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেটে ১৯৯ রান নিয়ে তৃতীয় দিন শেষ করেছে তারা।

এখনও অবশ্য ৪২ রানে পিছিয়ে আছে সফরকারীরা।

ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিতে এদিনের নায়ক ইব্রাহিম। ১১ চারে ২১৭ বলে ১০১ রান করে মাথা উঁচু করে মাঠ ছাড়েন আফগান ওপেনার। তার সঙ্গে ৪৬ রানে অপরাজিত রেহমাত শাহ। ৫ চারে ৪৭ রান করেন অভিষিক্ত ওপেনার নুর আলি জাদরান, যিনি ইব্রাহিমের চাচা।

দিনের শেষের মতো শুরুটাও ছিল আফগানিস্তানের। ৬ উইকেটে ৪১০ রান নিয়ে খেলতে নামা শ্রীলঙ্কাকে ৮ ওভারেই গুটিয়ে দেয় তারা। স্কোরবোর্ডে আর কেবল ২৯ রান যোগ করতে পারে স্বাগতিকরা।

২১ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামা সাদিরা সামারাউইক্রামা আর ৬ রান করেই ফিরে যান। হেলমেটে বলের আঘাতে আহত অবসর নিয়ে মাঠ ছাড়েন চামিকা গুনাসেকারা। অভিষিক্ত এই পেসারের কনকাশন বদলি হিসেবে ম্যাচের বাকি অংশে খেলছেন কাসুন রাজিথা। এরপর দ্রুত শেষ দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে দলটি।

আড়াইশর কাছাকাছি রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয়বার ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা দারুণ করে আফগানিস্তান। ইব্রাহিম ও নুরের উদ্বোধনী জুটিতে প্রথম ও দ্বিতীয় সেশন কাটিয়ে দেয় তারা। দুইজনেই ছিলেন সাবধানী, তাই খুব বেশি রান আসেনি এই সময়ে।

চাচ-ভাতিজার প্রায় ৪৩ ওভার স্থায়ী ১০৬ রানের এই জুটি ভাঙেন আসিথা ফার্নান্দো। ১৩৬ বল খেলে থিতু হয়ে যাওয়া নুরকে এলবিডব্লিউ করেন তিনি। টেস্টে এই প্রথম শতরানের উদ্বোধনী জুটি পেল আফগানরা।

ইব্রাহিম আগের মতোই দেখেশুনে খেলতে থাকেন। আলগা বলগুলোতেই কেবল বড় শট খেলেন তিনি। তাকে সঙ্গ দিয়ে দলের হাল ধরেন রেহমাত। তিনিও বেছে নেন সাবধানী ব্যাটিংয়ের পথ।

১১৫ বলে পঞ্চাশে পা রাখা ইব্রাহিম ৬৩ রানে একবার জীবন পান। প্রাবাথ জায়াসুরিয়ার বলে শর্ট-মিড অফে তার ক্যাচ নিতে পারেননি নিশান মাদুশকা।

ওয়ানডেতে পাঁচটি সেঞ্চুরি করা ইব্রাহিম টেস্টে তিন অঙ্কের উষ্ণ ছোঁয়া পান দিনের শেষ ওভারে। কাঙ্ক্ষিত ঠিকানায় পৌঁছান ২১৬ বলে। এর আগে তিনটি ফিফটি করেছেন তিনি এই সংস্করণে, আগের সর্বোচ্চ ছিল ৮৭।

রেহমাত ও ইব্রাহিমের অবিচ্ছিন্ন ৯৩ রানের জুটিতে দিন শেষ করেছে আফগানরা। দলকে কতটা এগিয়ে নিতে পারেন তারা, সেটাই এখন দেখার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

আফগানিস্তান ১ম ইনিংস: ১৯৮

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ১০৯.২ ওভারে ৪৩৯ (আগের দিন ৪১০/৬) (সামারাউইক্রামা ২৭, গুনাসেকারা ১৬ আহত অবসর, প্রাবাথ ২, ভিশ্ব ০*, আসিথা ০; মাসুদ ১৯.২-৩-৭৬-২, সালিম ১২.১-০-৫৭-০, নাভিদ ২২.৫-৪-৮৩-৪, জিয়াউর ২৮-২-৯০-০, কাইস ২২-২-৯৮-২, রেহমাত ৩-০-১০-০, শাহিদি ২-০-১১-০)

আফগানিস্তান ২য় ইনিংস: ৭৫ ওভারে ১৯৯/১ (ইব্রাহিম ১০১*, নুর ৪৭, রেহমাত ৪৬*; ভিশ্ব ১১-৩-৩০-০, আসিথা ১৩-২-৩৫-১, রাজিথা ১০-২-৪৩-০, প্রাবাথ ৩২-৯-৬৬-০, ধানাঞ্জয়া ৯-১-২২-০)