যে কারণে শ্রীলঙ্কা সিরিজের কোনো ম্যাচ রাখা হয়নি মিরপুরে

বাংলাদেশ নারী দলের সিরিজকে গুরুত্ব দিয়েই ছেলেদের দলের কোনো ম্যাচ এবার রাখা হয়নি শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে।

ক্রীড়া প্রতিবেদকসিলেট থেকেবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Feb 2024, 09:30 AM
Updated : 3 Feb 2024, 09:30 AM

ব্যস্ত বছরে একইসময়ে দেশের মাঠে খেলবে বাংলাদেশের পুরুষ ও নারী ক্রিকেট দল। যে কারণে প্রথমবার কোনো পূর্ণাঙ্গ সিরিজে মিরপুরে রাখা হয়নি ছেলেদের দলের একটি ম্যাচও। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশের ছেলেদের লড়াইয়ের সময়টায় শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশের মেয়েরা।

এমনিতে আন্তর্জাতিক দলগুলির সফরে যে মাঠকে সবসময় সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয় বরাবরই, সেই মিরপুরেই এবার কোনো ম্যাচ রাখা হয়নি। মার্চ-এপ্রিলে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বাংলাদেশের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি, তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের সব ম্যাচই হবে চট্টগ্রাম ও সিলেটে। বাংলাদেশ ক্রিকেটের বাস্তবতায় এটি দারুণ বিস্ময়কর।

বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের ডেপুটি ম্যানেজার শাহরিয়ার নাফীস বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, মূলত মেয়েদের ক্রিকেটকে বাড়তি গুরুত্ব দিতেই এবার ছেলেদের কোনো ম্যাচ রাখা হয়নি মিরপুরে।

"মার্চের মাঝামাঝি সময়ে অস্ট্রেলিয়ার মেয়েরা আসবে। তাই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ছেলেদের খেলা ঢাকায় রাখা হয়নি। মেয়েদের ক্রিকেটও ছেলেদের ক্রিকেটের মতোই গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বকাপে সরাসরি সুযোগ পাওয়ার একটা বিষয় আছে। তাই সেরা সুবিধাদি দিয়েই খেলানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।"

অস্ট্রেলিয়ার মেয়েদের বিপক্ষে বাংলাদেশের সিরিজের সূচি এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে মার্চের তৃতীয় সপ্তাহে শুরু হওয়ার কথা সিরিজ। ছেলেদের সিরিজের সূচি অনুযায়ী ততদিনে শেষ হয়ে যাবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে সিরিজ। তবু মিরপুরে কোনো খেলা রাখা হলো না কেন, সেই ব্যাখ্যাও দিলেন নাফীস।

“অস্ট্রেলিয়ার মেয়েরা বাংলাদেশে আসবে ১৭ মার্চ। এর আগে বিপিএলের টানা খেলা চলবে মিরপুরে। এরপর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য প্রস্তুত করতে মাঠ ও উইকেটের কিছুটা বিশ্রামেরও প্রয়োজন আছে।”

“বড় বিষয় হলো, অস্ট্রেলিয়ার মতো দলের বিপক্ষে খেলতে প্রস্তুতিটাও ভালো নেওয়া জরুরি। ঢাকায় ছেলেদের খেলা হলে মেয়েরা সেই সুযোগটা পেত না। আমরা চেয়েছি মেয়েদের জন্য সর্বোচ্চ সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে। এজন্যই মূলত ছেলেদের কোনো খেলা এবার ঢাকায় রাখা হয়নি।”

‘হোম অব ক্রিকেট’ বলে পরিচিত শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে খেলার সুযোগ না পাওয়ায় গত বছর আক্ষেপের কথা বলেছিলেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক নিগার সুলতানাসহ মেয়েদের দলের আরও কয়েকজন। পরে ভারতের বিপক্ষে সিরিজের ম্যাচ রাখা হয় সেখানে। সেই ধারাবাহিকতায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজেও দেশের প্রধানতম ভেন্যুতে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন নিগাররা।

আইসিসি ভবিষ্যৎ সফরসূচির (এফটিপি) অন্তর্ভুক্ত এই সফরে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলবে অস্ট্রেলিয়া। ওয়ানডে সিরিজটি উইমেন'স চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ। এখন পর্যন্ত ১৮ পয়েন্ট নিয়ে চ্যাম্পিয়নশিপের দুই নম্বরে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ১৩ পয়েন্ট পাওয়া বাংলাদেশের অবস্থান সপ্তম। 

এর আগে ২০১৪ সালে সবশেষ বাংলাদেশে খেলতে এসেছিল অস্ট্রেলিয়া। নারী বিশ্বকাপের সবগুলো ম্যাচ তারা খেলেছিল সিলেটের মাঠে। সেবার স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে কোনো  ম্যাচ খেলেনি তারা। এবারই প্রথম ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কার ছেলেদের সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হবে সিলেটে, ওয়ানডে সিরিজ চট্টগ্রামে। টেস্ট সিরিজের একটি করে ম্যাচ হবে এই দুই শহরে।