আইএলটি-টোয়েন্টিতে ১২ মাসের জন্য নিষিদ্ধ নুর

শারজাহ ওয়ারিয়র্সের সঙ্গে চুক্তির নিয়ম ভেঙেছেন আফগানিস্তানের এই বাঁহাতি রিস্ট স্পিনার।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Feb 2024, 02:26 PM
Updated : 20 Feb 2024, 02:26 PM

ইন্টারন্যাশনাল লিগ টি-টোয়েন্টির (আইএলটি-টোয়েন্টি) দল শারজাহ ওয়ারিয়র্সের সঙ্গে চুক্তির নিয়ম ভেঙে বড় ধরনের শাস্তি পেয়েছেন নুর আহমেদ। সংযুক্ত আরব আমিরাতের ফ্র্যাঞ্চাইজি এই টুর্নামেন্টে আফগানিস্তানের বাঁহাতি রিস্ট স্পিনারকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। 

২০২৩ সালে শুরু হওয়া এই টুর্নামেন্টের প্রথম আসরের জন্য শারজাহর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন নুর। পরে তাকে একই শর্তে আরও এক বছর চুক্তি বাড়ানোর প্রস্তাব দেয় ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। কিন্তু রিটেনশন নোটিশে তিনি স্বাক্ষর করতে অস্বীকৃতি জানান এবং দক্ষিণ আফ্রিকার এসএটোয়েন্টিতে ডারবান জায়ান্টসের হয়ে খেলার সিদ্ধান্ত নেন। 

১৯ বছর বয়সী ক্রিকেটারের এই সিদ্ধান্ত ভালোভাবে নেয়নি শারজাহ। এর বিরোধিতা করে টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করে তারা। এরপর লিগের শৃঙ্খলা কমিটি তদন্ত শুরু করে এবং দুই পক্ষের বক্তব্য শোনে। 

তদন্ত শেষে প্রথমে ২০ মাসের জন্য নুরকে নিষিদ্ধ করার সুপারিশ করে কমিটি। মূল চুক্তিতে স্বাক্ষর করার সময় নুর নাবালক থাকার বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে এবং চুক্তির নিয়ম সম্পর্কে পুরোপুরি না জানার কারণে তার নিষেধাজ্ঞা ৮ মাস কমিয়ে দেওয়া হয়। 

শারজাহর হয়ে প্রথম আসরে ৭ ম্যাচ খেলে ১৪৮ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন নুর। তার বোলিং গড় ছিল ৩৭ ও ওভারপ্রতি রান দিয়েছিলেন সাতের বেশি। 

গত কয়েক মাসের মধ্যে নিষিদ্ধ হওয়া শারজাহর দ্বিতীয় ক্রিকেটার নুর। একইরকম ঘটনায় রিটেনশন নোটিশে স্বাক্ষর না করায় গত ডিসেম্বরে আফগান পেসার নাভিন-উক-হাককে ২০ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। ২০২৫ সালের আসরেও খেলতে পারবেন না তিনি।