‘ডামি নির্বাচন' প্রত্যাখ্যান করে ঢাবিতে মশাল মিছিল

“এই সরকার ভুয়া নির্বাচন কমিশন তৈরি করে মানুষের ট্যাক্সের টাকায় সাধারণ মানুষকে একটি ডামি নির্বাচন দেখাতে বাধ্য করেছে,” বলেন জোটের সমন্বয়ক।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Jan 2024, 02:59 PM
Updated : 12 Jan 2024, 02:59 PM

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ‘ডামি নির্বাচন' আখ্যা দিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মশাল মিছিল করেছে গণতান্ত্রিক ছাত্র জোট।

শুক্রবার সন্ধ্যায় টিএসসির পায়রা চত্বরের সামনে থেকে এ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি ভিসি চত্বর দিয়ে নীলক্ষেত মোড়, কাঁটাবন ও শাহবাগ হয়ে রাজু ভাস্কর্যের সামনে এসে শেষ হয়।

মিছিলে বিক্ষোভকারীরা ‘বাঁশের লাঠি মশাল হবে, স্বৈরাচারের পতন হবে', ‘প্রহসনের নির্বাচন মানি না, মানব না', ‘এক তরফা নির্বাচন, জনগণ মানে না', ‘ডামি নির্বাচন, জনগণ মানে না'-এমন নানা স্লোগান দেয়।

মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে গণতান্ত্রিক ছাত্র জোটের সমন্বয়ক মিতু সরকার বলেন, “এমন নজিরবিহীন অকেজো নির্বাচন বাংলাদেশ আগে কখনো দেখেনি। এই সরকার গত ১৫ বছর ধরে মানুষের ঘাড়ে চেপে বসেছে এবং আরও ৫ বছর থাকার পরিকল্পনা করেছে। 

“এই সরকার ভুয়া নির্বাচন কমিশন তৈরি করে মানুষের ট্যাক্সের টাকায় সাধারণ মানুষকে একটি ডামি নির্বাচন দেখাতে বাধ্য করেছে। কিন্তু মানুষ এই নির্বাচনকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে।”

ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি মিতু বলেন, “আমরা দেখেছি, গত ৭ জানুয়ারি কার্জনের ভোটকেন্দ্রে কিভাবে জালভোট মারা হয়েছে। কিভাবে এই সরকারের অনুগতরা সারাদেশে এককভাবে নির্বাচন করে ভোটের পার্সেন্টেজ বাড়াতে জাল ভোট দিয়েছে। 

“এই সরকার নির্বাচনের আগের দিনগুলোতে পুলিশ ও অন্যান্য বাহিনী দিয়ে আমাদের সভা সমাবেশ করতে বাধা দিয়েছে। তবে আমরা বলতে চাই, এই সরকারের পদত্যাগের আগ পর্যন্ত আমরা আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাব।"

সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি সালমান সিদ্দিকী বলেন, “৭ জানুয়ারির নির্বাচন ছিল প্রহসনের নির্বাচন, ডামি নির্বাচন। নির্বাচনের ফলাফল আগে থেকেই নির্ধারণ করা ছিল। দেশের জনগণ এই নির্বাচনকে বয়কট করেছে।

“কিন্তু জনগণের সমস্ত আশা আকাঙ্ক্ষা পদদলিত করে সরকার জোর করে সরকার গঠন করেছে। সরকার যতই বলুক ৪০ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে, জনগণ তা মানছে না। জনগণ নির্বাচনকে সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করেছে। আমরা সরকারকে আহ্বান জানাই, অবিলম্বে তারা পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে একটা সুষ্ঠু নির্বাচনের আয়োজন করা হোক।"

সমাবেশে ছাত্র ইউনিয়নের সহ-সভাপতি মিখা পিরেগু, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক ফাহিম আহমেদ চৌধুরী, বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর সহ-সাধারণ সম্পাদক জাবির আহমেদ জুবেল উপস্থিত ছিলেন।