স্মার্ট: ঋণ নেওয়ার খরচ ফেব্রুয়ারিতে আরো বাড়ল

নতুন মুদ্রানীতিতে নীতি সুদহার বাড়ানোর কথা জানিয়েছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তার প্রভাব দেখা গেল ফেব্রুয়ারির শুরুতেই।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Feb 2024, 07:24 AM
Updated : 1 Feb 2024, 07:24 AM

এক মাসের ব্যবধানে ব্যাংক ঋণের সুদহার বাড়ল ৫৪ বেসিস পয়েন্ট, যা গত সাত মাসের সর্বোচ্চ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে, ফেব্রুয়ারি মাসে নতুন ঋণ বিতরণে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ‘স্মার্ট’ (সিক্স মান্থস মুভিং এভারেজ রেট অব ট্রেজারি বিল) সুদহার ধরতে হবে ৮ দশমিক ৬৮ শতাংশ।

তাতে গ্রাহক পর্যায়ে সুদহার দাঁড়াবে প্রায় সাড়ে ১২ শতাংশ, আগের মাসে যা ছিল ১১ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

এর আগে গত ডিসেম্বর মাসে ৪২ বেসিস পয়েন্ট বাড়িয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক ‘স্মার্ট’ সুদহার ঠিক করে দিয়েছিল ৮ দশমিক ১৪ শতাংশ। সেই হিসাবে এবার সুদ হার ৫৪ বেসিস পয়েন্ট বাড়ল।

৮ দশমিক ৬৮ শতাংশ স্মার্ট সুদহারের সঙ্গে সর্বোচ্চ ৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ সুদ যোগ করে গ্রাহককে ঋণ দিতে পারবে ব্যাংক। তাতে গ্রাহক পর্যায়ে ঋণের সুদহার দাঁড়াবে সর্বোচ্চ ১২ দশমিক ৪৩ শতাংশে। জানুয়ারি মাসের স্মার্ট সুদহার প্রযোজ্য হবে ফেব্রুয়ারি মাসে বিতরণ করা নতুন ঋণের বেলায়।

গত মাসের মাঝামাঝি সময়ে ঘোষতি নতুন মুদ্রানীতিতে নীতি সুদহার বাড়ানোর কথা জানিয়েছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তার প্রভাব দেখা গেল ফেব্রুয়ারির শুরুতেই।

মুদ্রানীতির আধুনিকায়ন, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ ও বাজারভিত্তিক সুদহার ব্যবস্থা চালু করতে আইএমএফ এর শর্ত বাস্তবায়নে গত জুলাই মাস থেকে স্মার্ট সুদহার করিডোর চালু করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রথম মাসে স্মার্ট সুদহার ছিল ৭ দশমিক ১০ শতাংশ। এ হিসাবে গত সাত মাসে স্মার্ট সুদহার বাড়লো এক দশমিক ৫৮ বেসিস পয়েন্ট।

প্রতি ছয় মাসের ট্রেজারি বিল ও বন্ডের গড় সুদহার বের করে হিসাব করা হয় ‘স্মার্ট’ রেট। প্রতি মাসের শেষে বা প্রথম দিনে স্মার্ট সুদহার কত হবে তা জানিয়ে দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। যা পরবর্তী মাসে বিতরণ করা নতুন ঋণের জন্য প্রযোজ্য হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত জুন ও জুলাইয়ে মাসে স্মার্ট সুদহার ছিল ৭.১০ শতাংশ। অগাস্টে তা সামান্য বেড়ে ৭. ১৪ শতাংশ, সেপ্টেম্বরে ৭.২০ শতাংশ, অক্টোবরে ৭.৪৩ শতাংশ হয়। এরপর নভেম্বরে ৭.৭২ শতাংশ , ডিসেম্বরে ৮.১৪ শতাংশ এবং জানুয়ারিতে  ৮.৬৮ শতাংশ সুদহার ঠিক করে দেওয়া হয়।

নীতিমালা অনুযায়ী, প্রি-শিপমন্টে রপ্তানি ঋণ এবং কৃষি ও পল্লী ঋণে স্মার্ট সুদহারের সঙ্গে সর্বোচ্চ ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ যোগ করে গ্রাহকের সুদহার নির্ধারণ করতে পারবে ব্যাংক। আর এসএমই ঋণের বিপরীতে এর সঙ্গে ১ শতাংশ হারে সার্ভিস চার্জ নিতে পারবে।