টাঙ্গাইল শাড়ি আমাদের ছিল, আমাদেরই থাকবে: নানক

“টাঙ্গাইল শাড়ির পেটেন্ট (ভৌগোলিক নির্দেশক) পেতে জরুরি ও দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মন্ত্রণালয়ে জরুরিভাবে সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে সভা করে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।”

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Feb 2024, 01:57 PM
Updated : 4 Feb 2024, 01:57 PM

ঐতিহ্যবাহী টাঙ্গাইলের শাড়ির বাংলাদেশের ভৌগলিক নির্দেশক বা জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবির নানক। 

রোববার মতিঝিলে পাট অধিপ্তরে এক মতবিনিময় সভার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, “টাঙ্গাইল শাড়ির পেটেন্ট (ভৌগোলিক নির্দেশক) পেতে জরুরি ও দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মন্ত্রণালয়ে জরুরিভাবে সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে সভা করে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।” 

শত শত বছরের ঐতিহ্যের টাঙ্গাইল শাড়ির জিআই স্বীকৃতি দাবি করে সম্প্রতি সেটির স্বীকৃতি নিজেদের পক্ষে নিয়েছে প্রতিবেশী দেশটির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য। 

ভারতের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ফেইসবুক পেইজে বৃহস্পতিবার একটি পোস্টে বলা হয়, টাঙ্গাইল শাড়ি পশ্চিমবঙ্গের ঐতিহ্য। এক মাস আগেই পণ্যটিকে পশ্চিমবঙ্গের নদিয়া, পূর্ববর্ধমানের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

ভারত সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ তথ্য জানানোর পর বাংলাদেশের অনেক মানুষ এর প্রতিবাদ জানান এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

সমালোচনার এ বিষয়ে করণীয় ঠিক করতে রোববার বৈঠক ডাকে শিল্প মন্ত্রণালয়ের পেটেন্ট, শিল্প-নকশা ও ট্রেডমার্কস অধিদপ্তর। পাশাপাশি ভারতকে দেওয়ার স্বীকৃতির বিষয়ে আপত্তি ও প্রতিবাদ জানানোর কথা ভাবছে অধিদপ্তর। 

বিষয়টি গণমাধ্যমে আসার পর বাংলাদেশে এ নিয়ে প্রতিবাদের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষন করা হলে মন্ত্রী নানক বলেন, “ভারতের টাঙ্গাইল শাড়ির জিআই (ভৌগোলিক নির্দেশক) স্বত্ব নেওয়া তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। আমাদের টাঙ্গাইল শাড়ি আমাদের ছিল, আমাদেরই থাকবে।”

মতবিনিময় সভায় বস্ত্র পাট সচিব আব্দুর রউফ, পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সেলিনা হোসেন ও মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

সভায় মন্ত্রী বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোয় পাটের উৎপাদন বহুগুণে বেড়েছে। দেশে প্রয়োজনীয় কাঁচা পাটের সরবরাহ নিশ্চিত এবং পাট ও পাটজাত পণ্য রপ্তানি বাড়াতে সবসময় পাটের বাজারদর পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। ফলে পাটকলগুলো নিরবচ্ছিন্নভাবে পাট সংগ্রহ করতে পারছে, যা রপ্তানি আয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।

 আরও পড়ুন

Also Read: টাঙ্গাইল শাড়ির জিআই: ভারতের স্বীকৃতির 'প্রতিবাদ' জানাবে মন্ত্রণালয়

Also Read: টাঙ্গাইলের শাড়ির জিআই স্বীকৃতির দাবি, ক্ষোভ