বাণিজ্য ঘাটতি কমেছে, চলতি হিসাবে উদ্বৃত্ত

একবছরে বাণিজ্য ঘাটতির পরিমাণ কমেছে ১৪৬ কোটি ৩০ লাখ ডলার।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 11:07 AM
Updated : 6 Feb 2024, 11:07 AM

বছরের বেশি সময় ধরে আমদানি নিয়ন্ত্রণের উদ্যোগ থাকার মধ্যে জুলাই শেষে বাণিজ্য ঘাটতি বেশ কমেছে। ফলে জুলাইতে ইতিবাচক ধারায় ফিরেছে দেশের চলতি হিসাব।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক প্রকাশিত দেশের বৈদেশিক বাণিজ্য লেনদেনের যে হালানাগদ প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যায়,  চলতি অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইতে বাণিজ্য ঘাটতি দাঁড়িয়েছে মাত্র ৬৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার। এক বছর আগে ঘাটতি ছিল ২০৯ কোটি ৮০ লাখ ডলার। একবছরে বাণিজ্য ঘাটতির পরিমাণ কমেছে ১৪৬ কোটি ৩০ লাখ ডলার বা ৬৯ দশমিক ৭৩ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে রপ্তানি হয় ৪৩৫ কোটি ৬০ লাখ ডলারের পণ্য। গত বছরের জুলাইয়ে যা ছিল ৩৭৬ কোটি ৮০ লাখ ডলার। জুলাইয়ে আমদানির পরিমাণ ছিল ৪৯৯ কোটি ১০ লাখ ডলার। গত বছরের জুলাইয়ে আমদানির পরিমাণ ছিল ৫৮৬ কোটি ৬০ লাখ ডলার।

গত জুলাই শেষে চলতি হিসাবে উদ্বৃত্তের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫৩ কোটি ৭০ লাখ ডলার। ২০২২ সালের জুলাই যেখানে ঘাটতি ছিল ৪৪ কোটি ৯০ লাখ ডলার। চলতি হিসাবে উদ্বৃত্ত থাকার মানে নিয়মিত লেনদেনে কোনো ঋণ করতে হয় না দেশকে। আর ঘাটতি থাকলে ঋণ নিয়ে তা পূরণ করতে হয়।

এদিকে আর্থিক হিসাবে ঘাটতি বছরের ব্যবধানে আরও বেড়েছে। জুলাই মাসে ফাইন্যান্সিয়াল একাউন্টের ঘাটতি বেড়েছে প্রায় ১৪ গুণ। গত জুলাই শেষে এ হিসাবে ঘাটতি বেড়ে হয়েছে ৮৯ কোটি ৫০ লাখ ডলার। ২০২২ সালের জুলাই মাসে ঘাটতি ছিল মাত্র ৬ কোটি ৬০ লাখ ডলার। এ হিসাবে এক বছরে এ হিসাবে ঘাটতি বেড়েছে ৮২ কোটি ৯০ লাখ ডলার বা এক হাজার ২৫৬ শতাংশ।

তবে সামগ্রিক লেনদেনে (ওভারঅল ব্যালান্স) বড় ঘাটতি আগের চেয়ে সামান্য কমে হয়েছে ১০৬ কোটি ৭০ লাখ ডলার। গত বছরের জুলাইয়ে এই সূচকে ঘাটতি ছিল ১০৮ কোটি ১০ লাখ ডলার। 

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)