বার্ষিক কার্ডধারীদের সচিবালয়ে প্রবেশে ফি নিতে চায় সরকার

বেসরকারি ব্যক্তিদের বার্ষিক প্রবেশ ফি পাঁচ হাজার টাকা এবং বেসরকারি গাড়ি প্রবেশে বছরে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা ফি নির্ধারণের কথা বলা হয়েছে প্রস্তাবে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Nov 2022, 01:38 PM
Updated : 21 Nov 2022, 01:38 PM

প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয়ে প্রবেশের ক্ষেত্রে ‘বার্ষিক কার্ডধারীদের’ জন্য ফি চালুর পরিকল্পনা করেছে সরকার।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ গত অক্টোবরে ওই প্রস্তাব অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে।

সেখানে বেসরকারি ব্যক্তিদের বার্ষিক প্রবেশ ফির প্রস্তাব করা হয়েছে পাঁচ হাজার টাকা। আর সচিবালয়ে বেসরকারি গাড়ি প্রবেশে বছরে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা ফি নির্ধারণের কথা বলা হয়েছে।

তবে দৈনিক (যারা বিশেষ প্রয়োজনে কোনো এক দিন সচিবালয়ে যান) দর্শনার্থীদের এই ফির আওতামুক্ত রাখা হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সোমবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “কার্ড করতে খরচ লাগে, আর প্রবেশ গেইটের আধুনিককায়ণ হচ্ছে। তাই কেবিনেট সচিব এ ধরনের একটি...।

“কার্ডধারীরা আধুনিক ফটক দিয়ে কার্ড পাঞ্চ করে, ফিঙ্গার প্রিন্ট আর 'আইরিশ' দেখালেই অটোমেটিকলি ঢুকতে পারবেন। তবে দৈনিক দর্শনার্থীদের কোনো ফি লাগবে ন।“

নিচের বাক্স যাবে সামারি হিসাবে

·         সচিবালয়ে যারা সরকারি চাকরি করেন, পরিচ্ছন্নতাকর্মী থেকে শুরু করে সচিব পর্যন্ত সবাইকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে তিন বছর মেয়াদের কার্ড নিতে হয়।

·         এর বাইরে নির্দিষ্ট কিছু রাজনৈতিক ব্যক্তি, বাণিজ্যিক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা (সিআইপি) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বছর মেয়াদের সচিবালয় কার্ড পান।

·         সাংবাদিকরা এক বছর ও তিন বছর মেয়াদী কার্ড পান তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে।

·         দৈনিক দর্শনার্থীদের প্রবেশের জন্য মন্ত্রীর পিএস ও যুগ্মসচিব থেকে সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তারা কার্ড ইস্যু করতে পারেন।

·         আগে দর্শনার্থীদের জন্য হাতে হাতে কার্ড ইস্যু করা হলেও এখন ডিজিটাল কার্ড দেওয়া হচ্ছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “যারা সচিবালয়ে প্রবেশ করবে, তাদের একটা খরচ বহন করতে হবে, কারণ এখানে (সচিবালয়) আধুনিকায়নের কাজে বেশ অর্থের প্রয়োজন আছে।“

সচিবালয়ে ঢুকতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ফি লাগবে কিনা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “যারা চাকরি করেন, তাদের হওয়ার কথা নয়।

অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবের অগ্রগতি জানাতে না পারলেও মন্ত্রী বলেছেন, বার্ষিক কার্ডধারী চেয়ারম্যান ও মেয়রসহ স্থানীয় সরকারের প্রতিনিধিদের জন্যও ফি নির্ধারণের কথা তার মন্ত্রণালয় ভাবছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক