কামরাঙ্গীরচর থানায় হামলার অভিযোগে হাসপাতালের এমডিসহ গ্রেপ্তার ৭

পুলিশ বলছে, রিভারসাইড হাসপাতালের এক নার্সের দায়ের করা মামলা নেওয়ায় লোকজন নিয়ে থানায় চড়াও হন ডা. উসমানী।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Dec 2022, 09:59 AM
Updated : 2 Dec 2022, 09:59 AM


দুই শতাধিক লোক নিয়ে থানায় এসে ওসি, পরিদর্শক ও পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলার অভিযোগে ঢাকার কামরাঙ্গীরচরের রিভারসাইড হাসপাতালের এমডি এম এইচ উসমানীসহ সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাতে কামরাঙ্গীরচর থানায় ওই হামলার ঘটনার পর তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে পরিদর্শক (তদন্ত) মোস্তফা আনোয়ার জানান।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে তিনি বলেন, দুই দিন আগে রিভারসাইড হাসপাতালের এক নার্স মারধরের অভিযোগ এনে উসমানীর বিরুদ্ধে মামলা করেন।



“কাল রাতে উসমানী দুই থেকে আড়াইশ মানুষ নিয়ে থানায় হাজির হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। তার প্রশ্ন, থানা কেন ওই মামলা নিয়েছে। পুলিশ সদস্যরা বাধা দিলে তারা হাতাহাতি শুরু করে। তখন পুলিশ উসমানীসহ সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছে।”

গ্রেপ্তার বাকিরা হলেন– রাসেল হাওলাদার (৩৮), মো. লাল মিয়া (৫৮), হারুন অর রশিদ (৪৬), মো. সুমন (২৫), মো. কাউছার আলী (২৪) ও রাফিন সাদ বোরহান (২৩)।

রাতের ওই ঘটনার পর থানার এসআই আলাউদ্দিন ২১ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতপরিচয় আরও ৭০ থেকে ৮০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে উসমানীকে সাত দিনের পুলিশ হেফাজত চেয়ে আদালতে পাঠানো হবে বলে জানান পরিদর্শক আনোয়ার।

তিনি বলেন, উসমানী ওই হাসপাতালের এমডি এবং একজন চিকিৎসক। এর আগে তার বিরুদ্ধে একজন সাংবাদিকও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা করেছিলেন। গ্রেপ্তার বাকিরা তার হাসপাতালের কর্মী।

সিসি ক্যামেরার ভিডিও দেখে অন্যদেরও শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে জানান মোস্তফা আনোয়ার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক