পূজায় ৩ স্তরের নিরাপত্তা: পুলিশ সদর দপ্তর

সব পূজামণ্ডপে সিসি ক্যামেরা থাকবে, প্রযোজ্য ক্ষেত্রে মেটাল ডিটেকটর ও আর্চওয়ের ব্যবস্থা রাখা হবে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Sept 2022, 01:47 PM
Updated : 26 Sept 2022, 01:47 PM

দুর্গাপূজার সময় তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ।

সোমবার পুলিশ সদর দপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, দুর্গাপূজা নিরাপদে উদযাপনের লক্ষ্যে পুলিশ প্রাক পূজা, পূজা চলাকালীন ও পূজা পরবর্তী তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

এদিন সকালে পুলিশ সদর দপ্তরের 'হল অব প্রাইডে' শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে নিরাপত্তা সংক্রান্ত এক সভায় আইজিপি বেনজীর আহমেদ বলেন, “সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এ দেশের মানুষের অস্তিত্বের সাথে মিশে আছে। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় শান্তিপূর্ণভাবে দুর্গাপূজা উদযাপিত হবে বলে আশা করি।”

কমিউনিটি পুলিশের সদস্য এবং বিট পুলিশ কর্মকর্তাকে সংশ্লিষ্ট পূজা উদযাপন কমিটির সাথে সমন্বয় করে পূজার নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকার অনুরোধ জানান তিনি।

সভায় উপস্থিত হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতারা দুর্গাপূজায় এবারও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করায় সন্তোষ প্রকাশ করেন বলে পুলিশ সদরদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

সভায় সব পূজামণ্ডপে সিসি ক্যামেরা স্থাপন এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে হ্যান্ডহেল্ড মেটাল ডিটেকটর ও আর্চওয়ে গেইট স্থাপন, মণ্ডপে সার্বক্ষণিক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ, নারী ও পুরুষের জন্য পৃথক প্রবেশ ও প্রস্থান পথের ব্যবস্থা করা, পূজামণ্ডপ ও বিসর্জনস্থলে পর্যাপ্ত আলো, স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর বা চার্জার লাইটের ব্যবস্থা করা, আযান ও নামাজের সময় উচ্চশব্দে মাইক ব্যবহার না করার জন্য পূজা উদযাপন কমিটির প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

যে কোনো জরুরি প্রয়োজনে জাতীয় জরুরি সেবা-৯৯৯ এ কল করার জন্যও অনুরোধ করা হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে।

সভায় অতিরিক্ত আইজি এম খুরশীদ হোসেন, স্পেশাল ব্রাঞ্চের প্রধান অতিরিক্ত আইজিপ মো. মনিরুল ইসলাম, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জে এল ভৌমিক ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক চন্দ্রনাথ পোদ্দার, মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি মনীন্দ্র কুমার নাথ ও সাধারণ সম্পাদক রমেন মন্ডল, রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের স্বামী কল্পেশানন্দসহ পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রোববার মহালয়ার মাধ্যমে এবারের শারদীয় দুর্গোৎসবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। ৫ অক্টোবর বিজয়ী দশমীর মধ্য দিয়ে বাঙালি হিন্দুদের সবচেয়ে বড় এ উৎসবের সমাপ্তি হবে।  

এ বছর সারাদেশে ৩২ হাজার ১৬৮টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা উদযাপিত হবে, যার মধ্যে ঢাকা মহানগরে পূজামণ্ডপের সংখ্যা ২৪১টি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক