দখলদারদের ‘ধিক্কার’ মেয়র আতিকের

খাল দখলমুক্ত করে একটির সঙ্গে আরেকটির সংযোগ স্থাপন করতে চায় ডিএনসিসি।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Feb 2024, 01:51 PM
Updated : 7 Feb 2024, 01:51 PM

যারা খাল, সরকারি জমি দখল করে রেখেছে, তাদের প্রতি ‘ধিক্কার’ জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

বুধবার ভাটারায় সুতিভোলা খালে উচ্ছেদ অভিযানে গিয়ে তিনি বলেন, “অত্যন্ত দুঃখের বিষয় সরকারি খাল, খাস জমি এগুলো কতিপয় দখলদার অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে। যারা সরকারি জমি, জনগণের জমি দখল করেছে তাদের ধিক্কার জানাই।

“আমি স্থানীয় সংসদ সদস্য, কাউন্সিলর, নদী রক্ষা কমিশনসহ পরিবেশ নিয়ে কাজ করে এমন অন্যান্য সংগঠনের প্রতিনিধি ও জনগণকে সঙ্গে নিয়ে অবৈধ স্থাপনা ভেঙে দেব। অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করব। অভিযান শুরু হয়েছে। এই অভিযান চলবে।”

আতিকুল ইসলাম জানান, সুতিভোলা খালের প্রায় ৭ কিলোমিটার অংশের উন্নয়নকাজে ৮০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে। ঢাকার পূর্বাঞ্চলের এ খালের দৈর্ঘ্য ২৯ কিলোমিটার।

খাল দখলমুক্ত করে একটির সঙ্গে আরেকটির সংযোগ স্থাপন করা হবে জানিয়ে মেয়র বলেন, “এ বছরের মধ্যে প্রথম ধাপে সুতিভোলা খালের ৭ কিলোমিটার এবং পরে বাকি ২২ কিলোমিটার অংশের উন্নয়নকাজ হবে।”

এ খালের আদলে পর্যায়ক্রমে অন্য খালেরও উন্নয়ন করা হবে বলে তথ্য দেন তিনি।

অন্যদের মধ্যে ঢাকা-১৭ আসনের সংসদ সদস্য ওয়াকিল উদ্দিন, স্থপতি ইকবাল হাবিব, বুয়েটের পানিসম্পদ কৌশল বিভাগের অধ্যাপক আতাউর রহমান, ডিএনসিসির প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহাম্মদ আমিরুল ইসলাম, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ ফিদা হাসান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।