তাপমাত্রা বাড়বে শনিবার থেকে

কিশোরগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলাসহ রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে এখনো বয়ে যাচ্ছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 05:22 AM
Updated : 9 Feb 2024, 05:22 AM

বসন্তের আগে আগে রাজধানীসহ অনেক এলাকায় তাপমাত্রা বাড়লেও কিশোরগঞ্জ ও মৌলভীবাজার জেলাসহ রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে এখনো চলছে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ।

আবহাওয়া অফিস বলছে, চলতি মাস জুড়েই শীতের অনুভূতি থাকবে। তবে শনিবার থেকে তাপমাত্রা বাড়তে থাকবে।

শুক্রবার সকালে আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা নেই। সারা দেশে মোটামুটি ঠান্ডা আছে।

“ফেব্রুয়ারি মাস জুড়েই শীত থাকবে, তবে কাল (শনিবার) থেকে সারা দেশের তাপমাত্রা বাড়তে থাকবে। এরপর শীতের অনুভূতি কমতে থাকবে।”

বড় এলাকাজুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে তাকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ ধরা হয়; ৬ থেকে ৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি এবং ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলা হয়।

শুক্রবার দেশের সর্বনিম্ন ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলা ও চুয়াডাঙ্গা জেলায়।

এদিন উত্তরের জনপদে কুড়িগ্রামের রাজারহাটে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, দিনাজপুরে ৮.৮ ও সৈয়দপুরে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। সেইসঙ্গে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ৮.৮ এবং কিশোরগঞ্জের নিকলিতে ৯.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। রাজশাহী জেলায় সর্বনিম্ন ৮.১ ও ঈশ্বরদীতে ৮.২ এবং নওগাঁর বদলগাছিতে ৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

চলতি মৌসুমে এর মধ্যে তিন দফা শৈত্যপ্রবাহ বয়ে গেছে। জানুয়ারির প্রথমার্ধে বিস্তীর্ণ জনপদে টানা কয়েক দিন মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বিরাজ করে। ২০ জানুয়ারি মৌসুমের সর্বনিম্ন ৫ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে।

বাংলাদেশে সাধারণ শীত থাকে ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। ঋতু পরিবর্তনের সন্ধিক্ষণে আবহাওয়াগত পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়। পাঁচ দিন পরই শুরু হচ্ছে বসন্ত। ইতোমধ্যে গাছে গাছে পাতা ঝরাও শুরু হয়ে গেছে। বসন্তের শুরুতে, বিশেষ করে ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয়ার্ধে দেশের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে ঝড়-বৃষ্টি এবং শিলা বৃষ্টির প্রবণতা থাকে।