‘বৃহন্নলা’ বিতর্ক তদন্তে কমিটি

অন্যের গল্প অনুকরণ করে বৃহন্নলা চলচ্চিত্র তৈরির অভিযোগ খতিয়ে দেখতে একটি তদন্ত কমিটি করেছে তথ্য মন্ত্রণালয়।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 March 2016, 12:37 PM
Updated : 24 March 2016, 12:37 PM

বাংলাদেশ বেতারের মহাপরিচালক এ কে এম নেছারউদ্দিন ভূইয়াকে প্রধান করে এই কমিটি করা হয়েছে বলে তথ্যসচিব মরতুজা আহমদ বৃহস্পতিবারবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছেন।

২০১৪ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারেরতালিকায় সরকারি অনুদানে নির্মিত ‘বৃহন্নলা’ সিনেমাটি শ্রেষ্ঠ সিনেমা, শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার ও শ্রেষ্ঠ সংলাপ রচয়িতা বিভাগে পুরস্কৃত হয়েছে।

অনুকরণ করে বৃহন্নলা সিনেমা তৈরির অভিযোগেরবিষয়ে বক্তব্য জানাতে এই চলচ্চিত্রের পরিচালক মুরাদ পারভেজকে কারণদর্শানোর নোটিসও দেয় তথ্য মন্ত্রণালয়।

মুরাদ পারভেজ নোটিসেরজবাব দিয়েছেন জানিয়ে তথ্যসচিব বলেন, বৃহন্নলা চলচ্চিত্র নিয়ে গণমাধ্যমে বিভিন্নধরনের খবর প্রকাশিত হয়েছে। উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন এই তদন্ত কমিটি সেসব বিষয়ে তদন্ত করবে।

তদন্ত কমিটিতে সদস্য হিসেবে কাদের রাখাহয়েছে সে বিষয়ে কিছু না জানালেও মরতুজা আহমদ বলেন, তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পরপরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশনা করার শর্তে জানান, কারণ দর্শানোর নোটিসের জবাবে মুরাদ পারভেজসব তথ্য ঠিক নাও দিতে পারেন। তদন্ত কমিটির সদস্যরা সব পক্ষের সঙ্গেই কথা বলবেন।

গল্প অনুকরণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তিনবিভাগে পাওয়া বৃহন্নলার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার বাতিল করা হবে বলেও জানান তিনি।

গত বছর ভারতের জয়পুর চলচ্চিত্র উৎসবে বৃহন্নলাসিনেমাটি পুরস্কৃত হওয়ার পর এর নির্মাতার বিরুদ্ধে ভারতীয় সাহিত্যিক সৈয়দ মুস্তাফাসিরাজের ছোট গল্প ‘গাছটি বলেছিল’ অনুকরণের অভিযোগ ওঠে।

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতীয় দৈনিক টাইমসঅব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজের ছোট ছেলে সাংবাদিকঅমিতাভ সিরাজ দাবি করেছেন, তার বাবার গল্প অনুকরণ করে ‘বৃহন্নলা’ চলচ্চিত্রটি নির্মাণকরা হয়েছে।

‘বৃহন্নলা’ চলচ্চিত্রের কাহিনীর স্বত্বহিসাবে প্রয়াত সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজের নাম ব্যবহার এবং তার পরিবারকে দেড় লাখ রুপি দেওয়ারঅনুরোধ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুকে চিঠি দিয়েছেনপশ্চিমবঙ্গের কথাসাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় ও দেবেশ রায়।

এছাড়া সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজ আকাদেমি’র সচিবসৈয়দ হাসমত জালালও একই বিষয়ে তথ্যমন্ত্রীকে আলাদা চিঠি দিয়েছেন।

তদন্ত কমিটির প্রধান বর্তমানে চীন সফরেথাকায় তদন্তের অগ্রগতি জানা যায়নি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক