মির্জা আব্বাসের দুর্নীতির মামলায় যুক্তিতর্ক পেছাল

ঢাকার ৬ নম্বর বিশেষ জজ মঞ্জুরুল ইমাম এ শুনানির জন্য তারিখ রেখেছেন আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Jan 2024, 12:38 PM
Updated : 24 Jan 2024, 12:38 PM

সম্পদের তথ্য গোপন এবং জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদকের মামলায় নতুন করে যুক্তিতর্কের তারিখ পড়লেও তা হয়নি। 

বুধবার এই মামলায় নতুন করে যুক্তিতর্ক শুনানির দিন ছিল। কিন্তু আসামিপক্ষের সময় আবেদনের কারণে তা পিছিয়ে যায়। 

ঢাকার ৬ নম্বর বিশেষ জজ মঞ্জুরুল ইমাম এ শুনানির জন্য তারিখ রেখেছেন আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি। 

এদিন ছিল মূলত রায় ঘোষণার তারিখ। কিন্তু মঙ্গলবার বিচারক জানিয়ে দেন, রায় নয়, ফের যুক্তিতর্ক হবে। 

Also Read: দুর্নীতির মামলা: বুধবার মির্জা আব্বাসের রায় নয়, ফের যুক্তিতর্ক হবে

এর আগে এ মামলার রায় ঘোষণার তারিখ দুইবার পিছিয়েছে। 

রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শুনে রায় ঘোষণার জন্য বিচারক প্রথমবার ৩০ নভেম্বর তারিখ দিয়েছিলেন। কিন্তু সেদিন বিচারক জানিয়েছিলেন ‘সময়ের অভাবে’ রায় প্রস্তুত করা যায়নি, তাই তারিখ ঠিক করেন ১২ ডিসেম্বর। 

কিন্তু বিচারকের ‘বাবা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে থাকায়’ ওই তারিখও পিছিয়ে যায়। রায়ের জন্য নতুন তারিখ রাখা হয় ২৮ ডিসেম্বর। 

আয়ের সঙ্গে ‘অসঙ্গতিপূর্ণ’ ৭ কোটি ৫৪ লাখ ৩২ হাজার ২৯০ টাকার সম্পদের মালিক হওয়া এবং ৫৭ লাখ ২৬ হাজার ৫৭১ টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ১৬ অগাস্ট দুদকের উপপরিচালক মো. শফিউল আলম ঢাকার রমনা থানায় এ মামলা করেন। 

তদন্ত শেষে ২০০৮ সালের ২৪ মে দুদকের উপপরিচালক মো. খায়রুল হুদা আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। 

সেখানে আব্বাসের বিরুদ্ধে ৪ কোটি ২৩ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং ২২ লাখ টাকার সম্পত্তির তথ্য গোপনের অভিযোগ আনা হয়। 

২০০৮ সালের ১৬ জুন মির্জা আব্বাসের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন বিচারক।