যুক্তরাষ্ট্র সরকার অচলাবস্থার দুয়ারে

শাটডাউন এড়াতে রিপাবলিকানদের কাছে স্পষ্ট আর কোনো কৌশল নেই।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Oct 2023, 06:06 AM
Updated : 25 Oct 2023, 06:06 AM

সরকারকে সাময়িকভাবে অর্থায়নের প্রস্তাবিত একটি বিল প্রতিনিধি পরিষদের কট্টরপন্থি রিপাবলিকানরা আটকে দেওয়ার পর অচলাবস্থার দ্বারে এখন যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকান নেতাদের প্রস্তাবিত বিলটি শুক্রবার আটকে দেয় দলটির কট্টরপন্থি অংশ, এতে শনিবার মধ্যরাতের মধ্যে ফেডারেল সংস্থাগুলোকে তহবিল বরাদ্দের সময়সীমা পার হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এমনটি হলে রোববার থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল সংস্থাগুলোর কার্যক্রম আংশিক বন্ধ হয়ে যাবে।

সরকারকে অর্থায়নের সময়সীমা আরও ৩০ দিন বাড়িয়ে ‘শাটডাউন’ এড়ানোর একটি প্রস্তাবিত পরিকল্পনা নিম্নকক্ষে ২৩২-১৯৮ ভোটে পরাজিত হয়। এই প্রস্তাবে রিপাবলিকানদের অগ্রাধিকার দিয়ে সরকারি ব্যয় হ্রাস ও অভিবাসন সীমিত করার বিষয়গুলো রাখা হয়েছিল। কংগ্রেসের নিম্নকক্ষে ২২১ আসন নিয়ে রিপাবলিকানরা সংখ্যাগরিষ্ঠ, কিন্তু বিরোধী ২১২ জন ডেমোক্রেট প্রতিনিধির সঙ্গে কট্টরপন্থি ২১ জন রিপাবলিকান প্রস্তাবিত বিলটির বিপক্ষে ভোট দেন। এখন শাটডাউন এড়াতে রিপাবলিকানদের কাছে স্পষ্ট আর কোনো কৌশল নেই।

যদি রোববার প্রথম প্রহর ১২টা ১ মিনিটের আগে ‘শাটডাউন’ এড়ানোর বিষয়ে কোনো সমঝোতা না হয় তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় উদ্যানগুলো বন্ধ হয়ে যাবে, ৪০ লাখ ফেডারেল কর্মী বেতন পাবে না এবং আর্থিক তদারকি থেকে বৈজ্ঞানিক গবেষণার মতো অনেককিছু থেমে যাবে। 

শাটডাউনের কারণে মার্কিন সশস্ত্র বাহিনীগুলোতে বাজে প্রভাব পড়তে পারে বলে সতর্ক করেছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। 

শনিবার মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের সরকারি অর্থায়ন নিয়ে আরও ভোট হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

যুক্তরাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেন বলেছেন, সরকারের কার্যক্রম অচল হলে তাতে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক অগ্রগতি ‘ক্ষতিগ্রস্ত’ হতে পারে।

এমনটি হলে এক দশকের মধ্যে এটি যুক্তরাষ্ট্রের চতুর্থ শাটডাউন হবে। আর তা হলে যুক্তরাষ্ট্রের ঋণমান ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে বলে সতর্ক করেছে রেটিং সংস্থা মুডিস। সংবাদ সূত্র: রয়টার্স

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)