কিছু শরিয়া আইনকে ‘অসাংবিধানিক’ ঘোষণা মালয়েশিয়ার শীর্ষ আদালতের

এ তাৎপর্যপূর্ণ রায় মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটির অন্যান্য অংশে একই ধরনের শরিয়া আইনগুলোতে প্রভাব ফেলতে পারে।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 09:48 AM
Updated : 9 Feb 2024, 09:48 AM

মালয়েশিয়ার কেলান্তান রাজ্য প্রাণীত এক ডজনেরও বেশি শরিয়া আইনকে অসাংবিধানিক ঘোষণা করেছে দেশটির শীর্ষ আদালত।

শুক্রবারের এ তাৎপর্যপূর্ণ রায় মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটির অন্যান্য অংশে একই ধরনের শরিয়া আইনগুলোতে প্রভাব ফেলতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।  

মালয়েশিয়ার আইন পরিচালিত হয় দু’টি সমান্তরাল ধারায়। ধর্মনিরপেক্ষ আইনগুলোর পাশাপাশি ইসলামিক ফৌজদারি ও পারিবারিক আইনগুলো মুসলিমদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হয়। রাজ্যের আইনসভাগুলো ইসলামিক আইন প্রণয়ণ করে আর ধর্মনিরপেক্ষ আইনগুলো মালয়েশিয়ার পার্লামেন্টে পাস হয়।

রয়টার্স জানিয়েছে, ফেডারেল আদালতের নয় সদস্যের একটি বেঞ্চের সংখ্যাগরিষ্ঠের সিদ্ধান্তের ভিত্তিতে কেলান্তান রাজ্যের ১৬টি শরিয়া অপরাধ আইনকে ‘অকার্যকর এবং অবৈধ’ বলে ঘোষণা করা হয়। এগুলোর মধ্যে পুরুষদের সমকামিতা, অজাচার, জুয়া, যৌন হয়রানি এবং উপাসনালয়কে অপবিত্র করার আইনও আছে।   

মালয়েশিয়ার প্রধান বিচারপতি টেংকু মাইমুন তুয়ান মাত বলেছেন, এসব আইন প্রণয়ণ করার কেনো কর্তৃত্ব কেলান্তান রাজ্যের নেই, যেহেতু ওই বিষয়বস্তু পার্লামেন্টের আইন প্রণয়ণের ক্ষমতার আওতায় ছিল। 

“ওই বিধানগুলোর সারাংশ ফেডারেল তালিকার বিষয়গুলোর অধীন, এসব আইন শুধু পার্লামেন্ট প্রণয়ণ করতে পারে,” বলেছেন তিনি। 

মালয়েশিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য কেলান্তান থাইল্যান্ডের দক্ষিণ সীমান্তবর্তী। রাজ্যটির ক্ষমতাসীন দল মালয়েশিয়া ইসলামিক পার্টি কঠোর ইসলামিক শরিয়া আইন প্রবর্তনের পক্ষে।