ইউক্রেইনের যুদ্ধবন্দিদের নিয়ে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজের সব আরোহী নিহত

ইলিউশিন-৭৬ পরিবহন বিমানটিতে ইউক্রেইনীয় বাহিনীর ৬৫ জন বন্দি ছিলেন, যাদের বিনিময় করার জন্য নেওয়া হচ্ছিল।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Jan 2024, 10:51 AM
Updated : 24 Jan 2024, 10:51 AM

ইউক্রেইনের ৬৫ যুদ্ধবন্দিসহ ৭৪ আরোহী নিয়ে রুশ সামরিক বাহিনীর একটি উড়োজাহাজ রাশিয়ার বেলগোরোদ অঞ্চলে বিধ্বস্ত হয়েছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, ইলিউশিন-৭৬ পরিবহন বিমানটিতে ইউক্রেইনীয় বাহিনীর ৬৫ জন বন্দি ছিলেন, যাদের বিনিময় করার জন্য নেওয়া হচ্ছিল।

তারা ছাড়াও ছয়জন ক্রু এবং তিনজন নিরাপত্তাকর্মী ছিলেন ওই ফ্লাইটে। ইউক্রেইন সীমান্তের কাছে রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে সেটি বিধ্বস্ত হয়।

স্থানীয় বেলগোরোদ চ্যানেলে একটি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে, যেখানে দেখা যায়, একটি উড়োজাহাজ দ্রুত নেমে আসে এবং মাটিতে বিধ্বস্ত হওয়ার পর তাতে আগুন ধরে যায়।

রাশিয়ার পার্লামেন্ট সদস্য এবং অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল আন্দ্রেই কারতাপোলভ বলেন, উড়োজাহাজটি তিনটি ক্ষেপণাস্ত্র দ্বারা ভূপাতিত করা হয়েছে। তবে তিনি কোথা থেকে এ তথ্য পেয়েছেন সে বিষয়ে কিছু বলেননি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স স্বাধীনভাবে বিধ্বস্ত উড়োজাহাজটিতে কারা ছিলেন তা যাচাই করে দেখতে পারেনি।

তবে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর রাশিয়া এবং ইউক্রেইন নিয়মিত বন্দি বিনিময় করে।

এ বিষয়ে জানতে রয়টার্স থেকে ইউক্রেইনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এবং বিমান বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু সাড়া মেলেনি।

রাশিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ আছে এমন একটি চ্যানেল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টেলিগ্রামে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। যার সত্যতা যাচাই করে দেখেছে রয়টার্স। ভিডিওতে দেখা যায়, বেলগোরোদ অঞ্চলের ইয়াব্লোনোভো গ্রামের কাছে আকাশ থেকে বড় একটি উড়োজাহাজ মাটিতে পড়ছে এবং সেটি বিধ্বস্ত হয়ে আগুন ধরে গেছে।

সামরিক ওই উড়োজাহাজটির সব আরোহী মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় গভর্নর ভিয়াচেস্লাভ গ্লাদকভ।

টেলিগ্রামে এক পোসে্ট তিনি লেখেন, “একটি পরিবহন বিমান কোরোচানস্কি জেলায় বিধ্বস্ত হয়েছে। সেটি বিধ্বস্ত হয়ে একটি মাঠে পড়েছে। আরোহীরা সবাই মারা গেছেন।“

পুলিশ ও উদ্ধারকর্মীরা পুরো এলাকা ঘিরে ফেলেছে এবং উদ্ধার কাজ চলছে। তদন্তও শুরু হয়েছে।