নাইজেরিয়ায় মসজিদে ‘ডাকাতের হামলায় নিহত ১৫’

জুমার নামাজ চলাকালে বুকুয়ুম প্রশাসনিক এলাকার রুয়ান জেমা শহরের জুমুয়াত কেন্দ্রীয় মসজিদে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে সেখানকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Sept 2022, 03:50 AM
Updated : 25 Sept 2022, 03:50 AM

নাইজেরিয়ার উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য জামফারায় একটি মসজিদে একদল সশস্ত্র ডাকাতের হামলায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার বাসিন্দারা।

শুক্রবার জুমার নামাজ চলাকালে বুকুয়ুম প্রশাসনিক এলাকার রুয়ান জেমা শহরের জুমুয়াত কেন্দ্রীয় মসজিদে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে শনিবার তিন বাসিন্দা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান।

“সশস্ত্র ডাকাতরা মোটরবাইকে করে এসেছিল, তারা তাদের বন্দুক নিয়ে সোজা মসজিদে ঢুকে পড়ে এবং আমাদের লক্ষ্য করে নির্বিচারে গুলি চালাতে শুরু করে,” বলেছেন আমিমু মুস্তাফা নামের এক বাসিন্দা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেক বাসিন্দা জানান, শুক্রবার স্থানীয় সময় ২টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় অনেক আহতও হয়েছে।

বাসিন্দাদের দেওয়া এ তথ্য নিশ্চিত হতে জামফারা রাজ্য পুলিশের মুখপাত্রকে ফোন এবং মোবাইলে বার্তা পাঠানো হলেও তাৎক্ষণিকভাবে তার কাছ থেকে সাড়া পাওয়া যায়নি, জানিয়েছে রয়টার্স।

ডাকাতরা রুয়ান জেমার বাসিন্দাদের ক্ষতি করবে না, এই আশ্বাসের বিনিময়ে তাদেরকে নগদ ২১ হাজার ডলার, পেট্রল ও সিগারেট দেওয়া হয়েছিল বলে অগাস্টে শহরটির বাসিন্দারা জানিয়েছিলেন।

স্থানীয়ভাবে ডাকাত নামে পরিচিত ব্যাপক অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত লোকজনের এই গ্যাংটি গত ২ বছর ধরেই উত্তরপশ্চিম নাইজেরিয়াজুড়ে ব্যাপক সক্রিয়; এরই মধ্যে হাজার হাজার লোককে অপহরণ এবং কয়েকশ লোকের প্রাণ কেড়ে নেওয়া এই ডাকাতদের কারণে সড়কপথে ওই এলাকায় যাওয়া এবং অনেক খামারে যাওয়াও অনিরাপদ হয়ে দাঁড়িয়েছে। 

ডাকাতদের একের পর এক হামলা নাইজেরিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীগুলোর দুশ্চিন্তাও বাড়াচ্ছে। গত সপ্তাহে সামরিক বাহিনী ডাকাত ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে বোমা হামলা চালানোর অভিযান শুরুর আগে জামফারা ও আরও দুই রাজ্যের বাসিন্দাদের বনাঞ্চল থেকে সরে যাওয়ার নির্দেশনা দিয়েছিল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক