গাজায় এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখলো ইসরায়েল

গাজা যুদ্ধে সোমবার পর্যন্ত ২৫ হাজার ২৯৫ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। যাদের একটি বড় অংশ নারী ও শিশু।

রয়টার্স
Published : 23 Jan 2024, 08:29 AM
Updated : 23 Jan 2024, 08:29 AM

গাজায় হামাসের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে গিয়ে সোমবার ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জন ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়েছে বলে মঙ্গলবার ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

গাজার দক্ষিণের শহর খান ইউনিসের দখল নিতে গত সপ্তাহ থেকে সেখানে অভিযান শুরু করেছে ইসরায়েলের পদাতিক বাহিনী, সঙ্গে আকাশ হামলা তো চলছেই। মিশর সীমান্তের কাছের শহর খান ইউনিসেই হামাসের মূল সদর দফতর রয়েছে বলে দাবি করেছে ইসরায়েল। বলেছে, গত ৭ অক্টোবর হামাসের যে অংশটি ইসরায়েলের দক্ষিণাঞ্চলে হামলা চালিয়ে ১২শ’র বেশি মানুষকে হত্যা করেছে তারা খান ইউনিস থেকেই এসেছিল।

সর্বশেষ সেনা নিহতের বিষয়ে মঙ্গলবার সকালে ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র রেয়ার অ্যাডমিরাল ড্যানিয়েল হাগারি বলেন, একটি রকেট প্রপেলার গ্রেনেড একটি ট্যাঙ্কে আঘাত করতে ২১ ইসরায়েলি সেনা নিহত হয়। ওই ট্যাঙ্কটি ইসরায়েলি বাহিনীকে কাভার করছিল। একই সময়ে দুইটি দ্বিতল ভবনে বিস্ফোরণ হয়। ইসরায়েলি সেনারা ওই দুটি ভবনে বিস্ফোরক রেখে সেগুলো উড়িয়ে দিতে গিয়েছিল। কিন্তু তারা সরে যাওয়ার আগেই বিস্ফোরণ হয়ে ভবন দুটি ধসে পড়ে।

“কী কারণে আগেই বিস্ফোরণ হলো তা বুঝতে আমরা বিস্তারিত তদন্ত করে দেখছি এবং কারণ খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি।”

ইসরায়েলের প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হারজোগ এক বিবৃতিতে বলেন, “আজকের সকালটি অসহনীয় কঠিন।

“পুরো দেশের পক্ষ থেকে আমি নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা এবং আহতদের দ্রুত আরোগ্যলাভের প্রার্থনা করছি। এতটা দুঃখ ভারাক্রান্ত এবং কঠিন সকাল হওয়া সত্ত্বেও আমরা শক্ত আছি এবং মনে রেখেছি, একসাথে আমাদের জয় হবেই।”

ইসরায়েল গাজা থেকে হামাসকে সম্পূর্ণ নির্মূল করার প্রতিজ্ঞা করেছে। গাজা যুদ্ধে সোমবার পর্যন্ত ২৫ হাজার ২৯৫ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। যাদের একটি বড় অংশ নারী ও শিশু।

Also Read: ইসরায়েলের পার্লামেন্টে ঢুকে জিম্মিদের স্বজনদের বিক্ষোভ