ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে ভারতীয় ৩ টেলিভিশন স্টেশনকে জরিমানা, ভিডিও সরানোর নির্দেশ

অভিযোগ ওঠা অনুষ্ঠানগুলো ‘নৈতিকতা ও সম্প্রচারের মানদণ্ড এবং জাতিগত ও ধর্মীয় সম্প্রীতির প্রতিবেদনের উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট নির্দেশিকার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন’ বলে রায় দিয়েছে এনবিডিএসএ।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 March 2024, 06:32 PM
Updated : 2 March 2024, 06:32 PM

নিউজ এইটিন ইন্ডিয়া, টাইমস নাউ নবভারত এবং আজ তাক কে গত দুই বছর ধরে প্রচারিত তাদের বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানের ভিডিও সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে নিউজ ব্রডকাস্টিং অ্যান্ড ডিজিটাল স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি (এনবিডিএসএ)।

এনবিডিএসএ-র অভিযোগ, ওই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ঘৃণা এবং সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষের বার্তা ছড়ানো হয়েছে, যা ‘নৈতিকতা এবং সম্প্রচারের মানদণ্ড এবং জাতিগত ও ধর্মীয় সম্প্রীতির বিষয়ে নির্দেশিকার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন’।

কয়েকটি ঘটনায় ওই তিন টেলিভিশন স্টেশনকে জরিমানাও করা হয়েছে বলে খবর প্রকাশ করেছে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি এ কে শিকরির নেতৃত্বে টেলিভিশন নিউজ সম্প্রচার বিষয়ক নিয়ন্ত্রক পর্ষদ - এনবিডিএসএ গত ২৮ ফেব্রুয়ারি একটি বৈঠক করে এবং বিভিন্ন টেলিভশন স্টেশনে সম্প্রচারিত তাদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে আলোচনা করে। তারপর পর্ষদ থেকে সাতটি সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়।

নিউজ এইটিন ইন্ডিয়াকে ২০২২ সালে তাদের সম্প্রচারিত চারটি শো এর জন্য ৫০ হাজার রুপি জরিমানা করা হয়। ওই চারটি অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন আমান চোপড়া এবং আমিশ দেভগন। অনুষ্ঠানে তারা বলেন, ২০২২ সালে নিজের লিভ-ইন সঙ্গী অফতাব পুনাওয়ালার হাতে খুন হওয়া শ্রদ্ধা ওয়াকার হত্যাকাণ্ডটি ‘লাভ জিহাদ’ সংশ্লিষ্ট।

এ বিষয়ে এনবিডিএসএ বলেছে, “‘লাভ জিহাদ’ শব্দটি ঢিলেঢালাভাবে ব্যবহার করা উচিত নয় এবং ভবিষ্যতের কোনো সম্প্রচারে এটি ব্যবহার করতে হলে তা অত্যন্ত সুচিন্তিতভাবে ব্যবহার করা উচিত। কারণ এ ধরণের ধর্মীয় স্টেরিওটাইপিং দেশের ধর্মনিরপেক্ষ কাঠামোর ক্ষতি করতে পারে বা একটি সম্প্রদায়ের অপূরণীয় ক্ষতি করতে পারে এবং ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা বা বৈষম্য সৃষ্টি করতে পারে।”

এনবিডিএসএ আরেক টেলিভিশন স্টেশন টাইমস নাউ নবভারতকে তাদের ‘লাভ জিহাদ’ অনুষ্ঠানের জন্য এক লাখ রুপি জরিমানা করেছে। গত ৩১ মে ২০২৩ তারিখে ওই অনুষ্ঠানটি সম্প্রচার হয়; সঞ্চালক ছিলেন হিমাংশু দিক্ষিত।

এনবিডিএসএ-র সিদ্ধান্তের বিষয়ে দ্য টাইমস নেটওয়ার্কের পক্ষ থেকে বলা হয়, “আমরা এ রায় মেনে নিচ্ছি এবং ভবিষ্যতে গল্প নির্বাচনের ক্ষেত্রে আরও সতর্কতা নিশ্চিত করা সহ যা যা করা প্রয়োজন তার সবই করব।”

আজ তাককে একটি শোর ভিডিও সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে এনবিডিএসএ। ওই শোর সঞ্চালক ছিলেন সুধীর চৌধুরী।

এনবিডিএসএ থেকে বলা হয়, রাম নবমী ২০২৩ এ সুধীর তার অনুষ্ঠানে কিছু দুর্বৃত্তের কর্মকাণ্ডের দায় পুরো মুসলমান সম্প্রদায়ের উপর চাপিয়েছিলেন।

এনবিডিএসএ তাদের পর্যবেক্ষণে বলেছে, ওই অনুষ্ঠান সম্প্রচারে কোনো সমস্যাই হত না যদি সঞ্চালক তার বিশ্লেষণকে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনার মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখতেন।

“তবে ‘আজকের মুসলিম এলাকা, আগামীর মুসলিম দেশ’ এ ধরনের টিকারগুলি সম্প্রচারের মাধ্যমে অনুষ্ঠানটিকে সম্পূর্ণ ভিন্ন রঙ দেওয়া হয়েছিল।”

টেলিভিশন স্টেশনটিকে ৭৫ হাজার রুপি জরিমানা করা হয়েছে।

ইন্ডিয়া টুডে গ্রুপ একজন আইনজীবী বলেন, “যদিও আমরা এই রায়ে খুবই হতাশ হয়েছি। তবে আমরা নিয়ন্ত্রক পর্ষদের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাচ্ছি এবং তাদের রায় মেনে চলব।”