কনটেন্ট নিয়ে টিকটকে নিয়ম ভেঙেছে কি না তদন্ত করবে ইইউ

টিকটক ডিএসএ’র নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য দোষী প্রমাণিত হলে, বিশ্বব্যাপী আয়ের ৬ শতাংশ পর্যন্ত জরিমানার সম্মুখীন হতে পারে প্ল্যাটফর্মটির মালিক চীনভিত্তিক বাইটড্যান্স।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Feb 2024, 12:18 PM
Updated : 20 Feb 2024, 12:18 PM

শিশু সুরক্ষা ও স্বচ্ছ বিজ্ঞাপন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বাইটড্যান্স মালিকানাধীন সামাজিক মাধ্যম টিকটক অনলাইন কনটেন্ট বিষয়ক নিয়ম ভেঙেছে কিনা সেটি আনুষ্ঠানিকভাবে তদন্ত করবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

বিষয়টি সোমবার বলেছেন এক ইইউ কর্মকর্তা। আর এটি সামাজিক মাধ্যম প্ল্যাটফর্মটিকে মোটা অংকের জরিমানার ঝুঁকিতে ফেলেছে বলে প্রতিবেদনে লিখেছে রয়টার্স।

অ্যাপেটির ঝুঁকি মূল্যায়নের প্রতিবেদন ও তথ্যের অনুরোধে কোম্পানিটির উত্তরের পরেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইইউ’র ইন্টারনেট মার্কেট কমিশনার থিয়েরি ব্রেটন।

“আজ আমরা শিশুদের রক্ষা করার জন্য স্বচ্ছতা ও বাধ্যবাধকতার সন্দেহজনক লঙ্ঘন নিয়ে টিকটকের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছি। এর মধ্যে রয়েছে আসক্তিমূলক নকশা ও স্ক্রিন সময় সীমা, ‘র‍্যাবিট হোল ইফেক্ট’, বয়স যাচাইকরণ, ডিফল্ট প্রাইভেসি সেটিংস।” – সামাজিক মাধ্যম ‘এক্স’-এ এক পোস্টে বলেছেন ব্রেটন।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ডিজিটাল সার্ভিসেস অ্যাক্টস (ডিএসএ) সব অনলাইন প্ল্যাটফর্মের জন্য প্রযোজ্য হয়েছে ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে। এ কারণে, বিশেষত খুব বড় অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ও সার্চ ইঞ্জিনগুলোকে অবৈধ অনলাইন কনটেন্ট ও জননিরাপত্তার ঝুঁকি মোকাবেলায় অতিরিক্ত পদক্ষেপ নিতে হবে বলে উঠে এসেছে রয়টার্সের প্রতিবেদনে।

টিকটক ডিএসএ’র নিয়ম লঙ্ঘনের জন্য দোষী প্রমাণিত হলে, বিশ্বব্যাপী আয়ের ৬ শতাংশ পর্যন্ত জরিমানার সম্মুখীন হতে পারে প্ল্যাটফর্মটির মালিক চীনভিত্তিক বাইটড্যান্স।

তবে, টিকটক বলেছে প্ল্যাটফর্মে শিশুদের নিরাপদ রাখতে এ খাতের বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাবে তারা। পাশাপাশি, ইউরোপীয় কমিশনের কাছে এ বিষয়টি বিস্তারিতভাবে ব্যাখ্যা করার জন্য অপেক্ষা করছে তারা।

“টিনএজারদের রক্ষা করা ও ১৩ বছরের কম বয়সী ব্যবহারকারীদের প্ল্যাটফর্ম থেকে দূরে রাখার জন্য ফিচার ও সেটিংস পরিবর্তনে টিকটক অগ্রগামী ভূমিকা পালন করেছে। এ সমস্যার সঙ্গে গোটা ইন্ডাস্ট্রিই লড়াই করছে।” – বলেন টিকটকের একজন মুখপাত্র।

এ তদন্তে টিকটকের সিস্টেমের নকশার ওপরে নজর দেওয়ার কথা বলেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এর মধ্যে থাকবে অ্যালগরিদমিক সিস্টেম, যা আচরণগত আসক্তিকে উসকে দিতে পারে ও তথাকথিত ‘র‍্যাবিট হোল ইফেক্ট’ তৈরি করতে পারে।

অপ্রাপ্তবয়স্ক ব্যবহারকারীদের জন্য ভালো মানের প্রাইভেসি ও সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য টিকটক যথাযথ ও আনুপাতিক ব্যবস্থা নিয়েছে কিনা তাও তদন্ত করবে সংস্থাটি। পাশাপাশি, প্ল্যাটফর্মের বিজ্ঞাপনে গবেষকরা সম্ভাব্য অনলাইন ঝুঁকিগুলি যাচাই করতে পারেন টিকটক এমন নির্ভরযোগ্য ডাটাবেস সরবরাহ করে কিনা কমিশন সেটিও খতিয়ে দেখছে বলে প্রতিবেদনে লিখেছে রয়টার্স।