আইফোন ১৪, ১৪ প্লাসের প্রিঅর্ডার গত বছরের ১৩ মিনির চেয়ে ‘বাজে’!

“নতুন পণ্যের প্রিঅর্ডার ফলাফল প্রত্যাশার তুলনায় অনেক কম, মানে স্ট্যান্ডার্ড মডেলের জন্য এ বছর অ্যাপলের পণ্য বিভাজন কৌশল ব্যর্থ হয়েছে।”

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Sept 2022, 11:21 AM
Updated : 14 Sept 2022, 11:21 AM

অ্যাপলের ‘আইফোন ১৪’ ও ‘১৪ প্রো’র তুলনায় আগের ‘আইফোন ১৩’-ই প্রিঅর্ডারে ভালো ফলাফল দেখিয়েছিল বলে মত প্রকাশ করেছেন ‘নির্ভরযোগ্য’ এক অ্যাপল বিশ্লেষক।

গেল সপ্তাহের ‘ফার আউট’ আয়োজনে নতুন ‘আইফোন ১৪’ সিরিজের ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল। এই সব ফোন ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে বাজারে আসার কথা থাকলেও এর প্রি অর্ডার শুরু হয়েছে ৯ সেপ্টেম্বর থেকেই।

অ্যাপল বিশ্লেষক মিং চি কুয়ো’র তথ্য অনুযায়ী, আগের ‘আইফোন ১৩’-এর তুলনায় গ্রাহকরা কম প্রিঅর্ডার করেছে ‘আইফোন ১৪’ এবং ‘১৪ প্রো’।

“চাহিদায় ঘাটতি থাকায় উন্মোচনের দিনই স্টকে মিলবে ‘আইফোন ১৪’ ও ‘১৪ প্লাস’। এখন পর্যন্ত, ‘১৪’ ও ‘১৪ প্লাসের’ প্রিঅর্ডার ফলাফল ‘এসই ৩’ ও ‘১৩ মিনি’র চেয়ে বাজে।” --সোমবার এক ব্লগ পোস্টে লিখেছেন কুয়ো।

“আইফোন ১৩ মিনি’র জায়গা নেবে আইফোন ১৪ প্লাস।”

“নতুন পণ্যের প্রিঅর্ডার ফলাফল প্রত্যাশার তুলনায় অনেক কম, মানে স্ট্যান্ডার্ড মডেলের জন্য এ বছর অ্যাপলের পণ্য বিভাজন কৌশল ব্যর্থ হয়েছে।”

এমন হতাশাজনক ফলাফলের কারণে নভেম্বরে আইফোন ১৪ এবং ১৪ প্লাস শিপমেন্ট কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে বলে ধারণা প্রকাশ করেছেন কুয়ো।

বিপরীতে, আইফোন ১৪ প্রো এবং প্রো ম্যাক্স ডেলিভারির সময় চার সপ্তাহের বেশি হওয়ায় ‘ভাল চাহিদার প্রতিফলন ঘটতে পারে’ বলে জানিয়েছেন কুয়ো। প্রিঅর্ডার শুরুর কয়েক ঘন্টার মধ্যেই ‘আইফোন ১৪ প্রো’ এবং ‘প্রো ম্যাক্সের’ ডেলিভারির তারিখ পিছিয়ে অক্টোবরে নেয় কোম্পানিটি।

এই প্রসঙ্গে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট সিনেট অ্যাপলের মন্তব্য জানতে চাইলে তাৎক্ষণিক কোনো উত্তর মেলেনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক