ক্রিপ্টোকারেন্সি, যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাংক-গ্রাহক ‘দ্বন্দ্ব’

ক্রেডিট কার্ড প্রতিষ্ঠান আর ক্রিপ্টকারেন্সি কিনতে আগ্রহী গ্রাহকদের মধ্যে ‘দ্বন্দ্ব’ বাড়ছে, এমন খবর প্রকাশ করেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Jan 2018, 10:45 AM
Updated : 26 Jan 2018, 10:45 AM

গ্রাহকদের ক্রেডিট কার্ড দিয়ে ভার্চুয়াল মুদ্রা বা ক্রিপ্টোকারেন্সি বিটকয়েন কেনার সুযোগ দিতে নীতিমালা যাচাই করছে ব্যাংকিং ও আর্থিক সেবাদাতা যুক্তরাষ্ট্রের দুই বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান ব্যাংক অফ আমেরিকা এবং সিটিগ্রুপ। এ খবর প্রকাশের দুই সপ্তাহ আগে দেশটির আরেক ব্যাংক ক্যাপিটাল ওয়ান ফিনান্সিয়াল ক্রেডিট কার্ড দিয়ে ক্রিপ্টোকারেন্সি কেনা নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়।  

টরোন্টো-ডমিনিয়ন ব্যাংক-এর অঙ্গপ্রতিষ্ঠান টিডি ব্যাংক মার্কিন সংবাদমাধ্যমটিকে নিশ্চিত করে বলেছে, নিরাপত্তার কারণে কিছু বিটকয়েন লেনদেন প্রক্রিয়া করতে দেওয়া হচ্ছে না। ডিসকভার ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস নামের প্রতিষ্ঠানটি ২০১৫ সাল থেকে কার্যকরভাবে তাদের ক্রেডিট কার্ড দিয়ে ক্রিপ্টোকারেন্সি কেনা নিষিদ্ধ করেছে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি কিনতে দেওয়া নিয়ে ব্যাংক অফ আমেরিকার যাচাইয়ের খবর সর্বপ্রথম প্রকাশ করে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। 

ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেনের ক্ষেত্রে আর্থি প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে মুদ্রাপাচার। ডিসকভার-এর প্রধান নির্বাহী ডেভিড নেমস বুধবার ব্লুমবার্গ-এর এক প্রতিবেদনে বলেন, ক্রিপ্টোকারেন্সি কিনতে দেওয়া ব্যাংকগুলোর জন্য ‘মাথাব্যাথা’ সৃষ্টি করে, এজন্য মুদ্রাপাচার ঠেকাতে অর্থ লেনদেন পর্যবেক্ষণ করতে হয়।

চলতি মাসের শুরুতে আর্থিক লেনদেন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ভিসা ক্রিপ্টোকারেন্সি কার্ড সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ওয়েভক্রেস্ট-এর সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ছিন্ন করেছে। ওয়েভক্রেস্ট ব্যবহারকারীদেরকে তাদের ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রিপেইড কার্ডের অর্থে পরিণত করার সুযোগ দেয়। 

বিনিয়োগ ও আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান জে.পি. মরগান চেইজ এখনও গ্রাহকদের ক্রিপ্টোকারেন্সি কিনতে তাদের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারের সুযোগ দিচ্ছে। এই নীতিমালায় সামনে কোনো বদল আনা হবে কিনা তা নিয়ে সংবাদমাধ্যমটি প্রশ্ন করলেও প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে কোনো জবাব দেওয়া হয়নি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক