আচমকা লিভারপুল ছাড়ার ঘোষণা ক্লপের

চলতি মৌসুম শেষে আর লিভারপুলের কোচের দায়িত্বে থাকবেন না ৫৬ বছর বয়সী ইয়ুর্গেন ক্লপ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 Jan 2024, 11:16 AM
Updated : 26 Jan 2024, 11:16 AM

হুট করেই লিভারপুল ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন ইয়ুর্গেন ক্লপ। চলতি মৌসুম শেষে প্রিমিয়ার লিগের দলটির কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়াবেন তিনি।

২০১৫ সালের অক্টোবরে লিভারপুলের দায়িত্ব নেন ক্লপ। ৩০ বছরের খরা কাটিয়ে তার কোচিংয়েই ২০১৯-২০ মৌসুমে লিগ শিরোপা জেতে দলটি। তার আগের মৌসুমে তারা ঘরে তোলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা।

অ্যানফিল্ডে ক্লপের চুক্তির মেয়াদ ২০২৬ সাল পর্যন্ত। আগেভাগেই তার দায়িত্ব ছাড়ার কথা শুক্রবার বিবৃতি দিয়ে জানায় লিভারপুল।

ক্লাবের ওয়েবসাইটে ৫৬ বছর বয়সী জার্মান কোচ বলেন, এই সিদ্ধান্তের কথা গত নভেম্বরেই ক্লাব কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দেন তিনি।

“আমি বুঝতে পারছি এই খবর শুনে অনেকেই চমকে যাবেন। তবে অবশ্যই আমি এই সিদ্ধান্তের কারণ ব্যাখ্যা করতে পারি, অন্তত ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করতে পারি। এই ক্লাবের সবকিছুই আমি ভালোবাসি। এই শহরও ভালোবাসি। সমর্থক, দল, স্টাফ, সবাইকেই ভালোবাসি। কিন্তু তারপরও এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ায় বুঝতেই পারছেন আমি সত্যিই এটা চাই।”

“কীভাবে বোঝাব যে আমার দম ফুরিয়ে আসছে। এখন কোনো সমস্যা নেই। জানতাম যে, একটা সময় আমাকে এই ঘোষণাটা দিতে হবে। এখন আমি পুরোপুরি ভালো আছি। তবে এটা জানি যে, একই কাজ আমি বারবার করতে পারব না।”

ক্লপের কোচিংয়ে সব বড় শিরোপাই জিতেছে লিভারপুল। ২০১৯ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের পাশাপাশি তারা ঘরে তোলে উয়েফা সুপার কাপ ও ক্লাব বিশ্বকাপ শিরোপা। পরের মৌসুমে পায় কাঙ্ক্ষিত প্রিমিয়ার লিগ জয়ের স্বাদ।

২০২১-২২ মৌসুমে লিভারপুল জেতে ঘরোয়া ডাবল (লিগ কাপ ও এফএ কাপ)। সেবার চার শিরোপা জয়ের খুব কাছে গিয়েছিল দলটি। শেষ দিনের লড়াইয়ে তাদের চেয়ে ১ পয়েন্টে এগিয়ে প্রিমিয়ার লিগ জিতে যায় ম্যানচেস্টার সিটি। আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে তারা হেরে যায় রেয়াল মাদ্রিদের কাছে। ২০১৭-১৮ মৌসুমেও ইউরোপ সেরার প্রতিযোগিতাটির ফাইনালে খেলেছিল ক্লপের দল।

গত মৌসুমে অবশ্য কোনো শিরোপা জিততে পারেনি লিভারপুল। তবে চলতি মৌসুমে এখনও চার শিরোপার লড়াইয়ে আছে তারা।

২১ ম্যাচে ৪৮ পয়েন্ট নিয়ে লিভারপুল আছে প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষে। এফএ কাপে তারা উঠে গেছে চতুর্থ রাউন্ডে, লিগ কাপে ফাইনালে, আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোয়।