ভারত অধিনায়কের চোখে বাংলাদেশ কঠিন প্রতিপক্ষ

পাকিস্তান ও মালদ্বীপের বিপক্ষে ভালো ফুটবল খেলা বাংলাদেশকে সমীহ করছেন ভারত কোচ সুরেন ছেত্রি।

কাঠমান্ডু থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Sept 2022, 04:13 PM
Updated : 12 Sept 2022, 04:13 PM

দাপুটে ফুটবল খেলে আগেভাগে মেয়েদের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ও ভারত। এবার গ্রুপের সেরা হওয়ার লড়াইয়ে মুখোমুখি দল দুটি। প্রথম দুই রাউন্ডে দারুণ ফুটবল খেলা বাংলাদেশকে সমীহ করছেন ভারত কোচ সুরেন ছেত্রি। দলটির অধিনায়ক আশালতা দেবির চোখেও বাংলাদেশ ‘কঠিন প্রতিপক্ষ’।

নেপালের কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সাড়ে ৫টায় মুখোমুখি হবে দুই দল। পাকিস্তানকে ৩-০ গোলে হারানোর পর মালদ্বীপকে রীতিমতো গোলের মালা পরিয়ে ৯-০ ব্যবধানে জিতেছে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। আর সুন্দর ফুটবলের পসরা মেলে মালদ্বীপকে ৩-০ গোলে হারানোর পর পাকিস্তানকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেয় বাংলাদেশ।

মেয়েদের সাফ মানেই ভারতের জয়-জয়কার! গত পাঁচ আসরের সবগুলো শিরোপা তাদের। এ পর্যন্ত ভারতকে কোনো ম্যাচে হারের স্বাদ দিতে পারেনি কেউ! ২৩ ম্যাচে ২২ জয় ও একটি ড্র। ভারতকে একবারই পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে ‘বাধ্য’ করা দলটি বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে শিলিগুঁড়ির আসরে গ্রুপ পর্বের দেখায় তাদেরকে গোলশূন্য ড্রয়ে রুখে দিয়েছিল গোলাম রব্বানী ছোটনের দল।

তবে সাফের ষষ্ঠ আসরে যেন অন্য এক বাংলাদেশ ধরা দিয়েছে। ভারতের মতো তারাও দারুণ গতিতে ছুটছে, খেলছে উপভোগ্য ফুটবল। ভারত কোচ ছেত্রির চোখে পড়েছে আঁখি খাতুন-মাসুরা পারভীনদের শক্তিনির্ভর ফুটবল খেলতে পারার সামর্থ্যের দিকটিও। তবে বাংলাদেশকে সমীহ করলেও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলার বার্তা ঠিকই দিয়েছেন তিনি।

“বাংলাদেশ শক্তিনির্ভির দল। পাকিস্তান ও মালদ্বীপের বিপক্ষে তারা ভালো ফুটবল খেলেছে। প্রতিপক্ষ হিসাবে আমরা তাদেরকে শ্রদ্ধা করি। আমরা আক্রমণাত্মক মানসিকতা নিয়ে তাদের বিপক্ষে খেলব।”

“যেহেতু সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকবার মুখোমুখি হয়েছে ভারত ও বাংলাদেশ; সেহেতু দুই দলই পরস্পরের সম্পর্কে কিছুটা জানে। পরস্পরের শক্তি-দুর্বলতার ব্যাপারেও সচেতন। তবে আমরা ইতিবাচক থাকব।”

সাফের ছয় ম্যাচ এবং সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১০ ম্যাচে কখনও ভারতকে হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। ২০১৯ সালে নেপালের বিরাটনগরের আসরে সেমি-ফাইনালে বাংলাদেশকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে পরে শিরোপা উৎসব করেছিল তারা। ওই ম্যাচ রক্ষণে আলো ছড়িয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক আশালতা। তবে ২৯ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডার এবার বাংলাদেশকে মোটেও হালকাভাবে নিচ্ছেন না।

“বাংলাদেশ কঠিন প্রতিপক্ষ। আমি মেয়েদের বলেছি, মালদ্বীপের বিপক্ষে শেষ জয়টি ভুলে গিয়ে টিম কম্বিনেশনে মনোযোগ দিতে এবং ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজগুলো করতে।”

আরও পড়ুন:

Also Read: বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে সাবিনা-আঞ্জু দ্বৈরথ!

Also Read: ভারতের বিপক্ষে ‘ডু অর ডাই’ ম্যাচ, বললেন বাংলাদেশ কোচ

Also Read: ভারতের বিপক্ষে গোল পেতে মরিয়া স্বপ্না-কৃষ্ণাও

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক