রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের প্রীতম দাশ গ্রেপ্তার

গত ৪ সেপ্টেম্বর এক ব্যক্তি বাদী হয়ে প্রীতম দাশের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

মৌলভীবাজার প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Sept 2022, 04:43 AM
Updated : 10 Sept 2022, 04:43 AM

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের জাতীয় কমিটির সদস্য প্রীতম দাশকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি শামীম অর রশিদ তালুকদার জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রীতম দাশকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শনিবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

গত ৪ সেপ্টেম্বর মাহবুবুল আলম ভুইয়া নামে এক ব্যক্তি বাদী হয়ে প্রীতমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শ্রীমঙ্গল থানায় মামলা করেন বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের সদস্য রিয়াজ খান জানান, চা শ্রমিকদের মজুরি তিনশ টাকা করার দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ করে গত ২৭ অগাস্ট শ্রীমঙ্গল চৌমোহনায় সমাবেশের আয়োজন করে রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলন। সমাবেশ শুরুর প্রথমে প্রীতম দাশ ও জাবেদ ভূইয়াসহ নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালানো হয়। এতে তিনিসহ সংগঠনটির অনেক নেতাকর্মী আহত হন।

পরে ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী এই হামলা চালিয়েছে অভিযোগ করে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাব ও শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবে পৃথক দুটি সংবাদ সম্মেলন করেন প্রীতমসহ রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের সদস্যরা। এ ঘটনায় পুলিশ প্রশাসনের নিরব ভূমিকাকেও দায়ি করা হয়।

তিনি বলেন, “সংবাদ সম্মেলনের পরপরই প্রিতম দাশের ফেইসবুকে গত ৮ জুলাই পোস্ট করা ঊর্দু গল্পকার সাদাত হোসেন মান্টোর এক সাক্ষাৎকারের একটি অংশ স্ক্রিনশট দিয়ে ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগ এনে ৩০ অগাস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হয়।

Also Read: রব, মান্না, নুরদের সঙ্গে সাকি, সাইফুলদের গণতন্ত্র মঞ্চের আত্মপ্রকাশ

“এ ঘটনায় প্রীতমের বিরুদ্ধে ইসলাম অবমাননার অভিযোগ তোলেন শ্রীমঙ্গল পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবেদ হোসেন। প্রিতমকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়ে ফেইসবুকে পোস্টও দেন তিনি।”

সেই পোস্ট ভাইরাল হলে শ্রীমঙ্গলে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এবং মাহবুবুল আলম ভুইয়া নামে এক ব্যক্তি এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করলে ৪ সেপ্টেম্বর শ্রীমঙ্গল থানায় মামলা রেকর্ড হয়।

এই মামলার পলাতক আসামি হিসেবে শুক্রবার প্রিতমকে আটক করা হয়েছে বলে জানান রিয়াজ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক