আশুলিয়ায় বিছানায় পড়ে ছিল ঠিকাদারের গলাকাটা লাশ

নিহতের ভাই বলেন, “গত সংসদ নির্বাচনে আমরা একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছি। তখন হুমকি পেতাম।”

সাভার প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Feb 2024, 12:04 PM
Updated : 7 Feb 2024, 12:04 PM

ঢাকার আশুলিয়ায় পল্লি বিদ্যুতের এক ঠিকাদারের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার সকাল ১০টার দিকে আশুলিয়ার উত্তর ডেন্ডাবর এলাকার নিজের গরুর খামারের পাশের টিনের ঘরের একটি কক্ষে থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয় বলে আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) মিজানুর রহমান জানান।

ঢাকা পল্লি বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর ঠিকাদার নিহত কাজিম উদ্দিন মাদবর (৫৫) ওই এলাকার প্রয়াত ওয়াজ উদ্দিন মাদবরের ছেলে। ‘লিপি ডেইরি ফার্ম’ নামে গরুর একটি খামারের মালিকও তিনি।

খামারটির কর্মচারী আব্বাস আলি বলেন, “প্রতিদিন সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত আমি এখানে কাজ করি। বুধবার সকালে ফার্মে এসে ওই রুমটি তালাবদ্ধ দেখতে পাই। তখন পাশেই বসতবাড়িতে গিয়ে মালিকের স্ত্রীকে খবর দিই। তিনি এসে রুমের তালা খুলেন। পরে উনার চিৎকার শুনে আমি এগিয়ে গিয়ে দেখি, কাজিম উদ্দিন সাহেবের লাশ পড়ে আছে।“

নিহতের স্ত্রী সানজিদা আক্তার লিপি বলেন, “আমার স্বামী মাঝে-মধ্যে এই পুরাতন বাড়িতে আসতেন। এখানে একপাশে তার গরুর খামার, অন্য পাশে টিন শেডের বাড়ির কয়েকটি কক্ষ আছে। একটি কক্ষে গরুর খাবার রাখা হয়। পাশে একটি চৌকিতে বিছানা পাতা। সেখানে আমার স্বামী মাঝে-মধ্যে রাতে এসে থাকতেন।”

লিপি আরও বলেন, “সকালে কর্মচারী আব্বাস আলি কাজে এসে রুমের দরজায় তালা দেখে আমাকে গিয়ে তালা খুলে দিতে বলেন। আমি এসে অন্য চাবি দিয়ে তালা খুলে ভেতরে আমার স্বামীর গলাকাটা মরদেহ দেখতে পেয়ে সবাইকে খবর দিই।”

পরে পুলিশে আসে লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের ভাই গোলবাহার বলেন, “গত সংসদ নির্বাচনে আমরা একজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছি। তখন কেউ কেউ হুমকি দিত। এ থেকেও ঘটনা ঘটতে পারে।”

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) মিজানুর বলেন, “কে বা কারা কী কারণে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন তা জানা যায়নি। ঘটনাস্থলে পুলিশ ও র‌্যাবের একাধিক টিম গিয়ে তদন্ত করছে।”

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান পরিদর্শক মিজানুর রহমান।