যশোরে ৯ মোটরসাইকেলসহ ‘চোর চক্রের’ ১০ জন আটক

চুরির কাজে ব্যবহৃত ‘মাস্টার কি’ নামে পরিচিত বিশেষ ১২টি চাবি পাওয়া যায়

যশোর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 July 2022, 02:50 PM
Updated : 31 July 2022, 02:50 PM

মোটরসাইকেল চুরির বিরুদ্ধে বিশেষ অভিযানে আন্তঃজেলা চোর চক্রের সদস্য সন্দেহে ১০ জনকে আটক ও নয়টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে যশোর গোয়েন্দা পুলিশ।

শনিবার যশোর, মাগুরা ও ফরিদপুরে এই অভিযান চালানো হয় বলে যশোর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ওসি রূপন কুমার সরকার জানান।

অভিযানে আটকদের কাছ থেকে চুরির কাজে ব্যবহৃত ‘মাস্টার কি’ নামে পরিচিত বিশেষ ১২টি চাবিও পাওয়া যায় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

রোববার ওসি রূপন সরকার সাংবাদিকদের জানান, যশোরে সম্প্রতি বিভিন্ন মসজিদ, অনুষ্ঠানের স্থান, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান এবং বাসাবাড়ির সামনে থেকে মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা বৃদ্ধি পায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে চোর চক্রকে ধরতে বিশেষ অভিযান চালানো হয়।

“এক পর্যায়ে শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে যশোর উপশহর ডিগ্রি কলেজের মাঠ থেকে সাত জনকে ছয়টি মোটরসাইকেলসহ আটক করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তিতে মাগুরা ও ফরিদপুর থেকে আরও তিন মোটরসাইকেলসহ তিন জনকে আটক করা হয়।”

তিনি আরও জানান, আটক ১০ জন ‘আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্য’। এ চক্রের হোতা আকতার হোসেনের বাড়ি খুলনার ফুলতলা উপজেলার গাড়াখোলা গ্রামে। তিনি যশোর উপশহরের এ ব্লক মসজিদ গলিতে ভাড়া থাকতেন।

আটক অন্যরা হলেন যশোর সদরের নরেন্দ্রপুরের শহিদুল ইসলাম শেখ, বাহাদুরপুর গ্রামের শুকুর আলী রানা, খোলাডাঙ্গা তেলপুকুর এলাকার মোয়াজ্জেম হোসেন, চাঁদপাড়া গ্রামের আল আমিন, বাঘারপাড়া উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের ইব্রাহিম শিকদার ওরফে খোড়া ইব্রাহিম, মাগুরা সদর উপজেলার জগদল কলেজ পাড়ার সজিব শেখ, মহম্মদপুর উপজেলার মো. সুজন, গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার জোনাসোর গ্রামের মুন্না কাজী ও মাগুরা সদরের বজরুক শ্রীকুণ্ডি ঘোপডাঙ্গা গ্রামের নয়ন মোল্লা।

এ ঘটনায় ডিবি পুলিশের এসআই মফিজুল ইসলাম রোববার যশোর কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করেছেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক