নারায়ণগঞ্জে হোসিয়ারি শ্রমিক খুন

পুলিশ ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসকরা তাকে ঘোষণা করেন।

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 July 2022, 07:48 AM
Updated : 31 July 2022, 07:48 AM

নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলায় এক হোসিয়ারি কারখানার শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশের ধারণা, পূর্ব বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলার ফতুল্লার পশ্চিম দেওভোগ এলাকায় শনিবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে মেহেদী হাসান নামের ওই শ্রমিক হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।

২১ বছর বয়সী মেহেদী ওই এলাকায় শফিকুল ইসলাম বাবুর্চির ছেলে ছিলেন। তিনি স্থানীয় একটি হোসিয়ারি কারাখানায় কাজ করতেন।

ফতুল্লা মডেল থানার এসআই আবু হানিফ জানান, তারা খবর পেয়ে মেহেদীকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেন নি তিনি।

নিহতের মা সাফিয়া খাতুন বলেন, “এলাকায় একজনের জানাজা শেষে বাড়ির পাশের একটি চায়ের দোকানে গিয়েছিল মেহেদী। রাত সাড়ে ১০টার দিকে ছেলের মোবাইল ফোনে কল করলে সে বলে যে- আসতাছি। এ সময় কারা যেন পাশ থেকে বলছিল, ওরে নিয়া চল। এরপর আমার পোলার মোবাইল বন্ধ পাই।

“কিছুক্ষণ পর লোকজন আইসা কয় আমার পোলারে কুপাইছে। ওরে হাসপাতালে নিয়া গেছে। আমি হাসপাতালে আইসা দেখি আমার পোলা আর নাই।”

মেহেদীর বড় বোন মৌসুমী বেগম বলেন, “কিছুদিন আগে শহরের বালুর মাঠ এলাকায় কিছু লোকজনের সঙ্গে ভাইয়ের ঝামেলা হয়েছিল। এরপর থেকে আমার ভাই অনেক বার আমারে কইছে, ওরা আমারে পাইলে মারবো।”

তবে কাদের সঙ্গে মেহেদীর ঝামেলা হয়েছিল সে বিষয়ে কোনো তথ্য দিতে পারেনি মৌসুমী।

এ বিষয়ে ফতুল্লা থানার ওসি রিজাউল হক বলেন, “পূর্বশত্রুতার জেরেই ওই যুবককে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।”

এ ঘটনায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক