প্রার্থীর উঠান বৈঠকে থাকার অভিযোগে শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

নেত্রকোণা-২ আসনে ইসলামী ঐক্যজোটের প্রার্থীর উঠান বৈঠকে প্রধান শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।

নেত্রকোণা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Jan 2024, 12:17 PM
Updated : 15 Jan 2024, 12:17 PM

 দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোণার বারহাট্টা উপজেলায় একজন প্রার্থীর পক্ষে উঠান বৈঠকে বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে।

উপজেলার আশিয়ল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস এম সাজ্জাদুল হক সবুজের বিরুদ্ধে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের উপ-পরিচালক বাদী হয়ে মামলাটি করেছেন।

বারহাট্টা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম সোমবার বিষয়টি জানিয়েছেন।

অভিযোগে বলা হয়েছে, ৬ ডিসেম্বর নেত্রকোণা-২ (সদর-বারহাট্টা) আসনে ইসলামী ঐক্যজোটের প্রার্থী মো. ইলিয়াসের গ্রামের বাড়ি নুরুল্লার চরে উঠান বৈঠক হয়। ওই সভায় প্রধান শিক্ষক সাজ্জাদুল হক সবুজ উপস্থিত ছিলেন।

সভার একটি ভিডিওতে সবুজকে এলাকাবাসীর উদ্দেশে বলতে শোনা যায়, “ইলিয়াস খুব ভালো ছেলে। তাকে ধরে রাখতে হবে। ইলিয়াসের জন্য সবাই কাজ করবেন।”

ওই বক্তব্যের ভিডিও জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও ডিসি শাহেদ পারভেজের নজরে আসে। তিনি এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

পরে এ ঘটনায় প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের উপ-পরিচালক, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও বারহাট্টা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা প্রধান শিক্ষক সবুজকে পৃথক তিনটি কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন।

এ ছাড়া এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিভাগীয় তদন্ত হয়। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর সাজ্জাদুল হক সবুজের বিরুদ্ধে মামলা হয়।

বারহাট্টা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, “প্রধান শিক্ষক সাজ্জাদুল হক সবুজ অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে এক মাসের ছুটিতে গেছেন।”

তবে শিক্ষক সাজ্জাদুল হক সবুজ সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেন, ওই সভায় থাকা এক হুজুরের কাছ থেকে তিনি বাচ্চাদের জন্য তাবিজ আনতে গিয়েছিলেন। কোনো নির্বাচনি বক্তব্য দেননি।