২০ কেজির মাছটি বাগেরহাটে বিক্রি হলো প্রায় ২ লাখ টাকায়

বঙ্গোপসাগরে ধরা পড়া মাছটি আরও বেশি দামে বিক্রি হবে বলে আশা ক্রেতার

বাগেরহাট প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 August 2022, 02:09 PM
Updated : 19 August 2022, 02:09 PM

বঙ্গোপসাগরে ধরা পড়া প্রায় ২০ কেজি ওজনের একটি জাবা ভোল মাছ বাগেরহাটে এক লাখ ৯০ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে।

শুক্রবার ভোরে বাগেরহাট শহরের সামুদ্রিক মাছের পাইকারি আড়ৎ বাসাবাটি কেবি মাছ বাজারে মাছটি বিক্রি হয়।

বুধবার বঙ্গোপসাগরে বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার মাসুম শেখের ‘এফবি আলাউদ্দিন’ নামের ট্রলারের জেলেদের জালে মাছটি ধরা পড়ে।

বাগেরহাটের পাইকারি আড়তদার অনুপ বিশ্বাস বলেন, “ভোর ৫টার দিকে ‘এফবি আলাউদ্দিন’ নামের ট্রলারটি সাগর থেকে ঘাটে এসে পৌঁছে। জেলেরা মাছটি আমার আড়তে নিয়ে আসেন। তারপর মাছটির ওজন করা হয়।

“পাঁচ লাখ টাকা মণ দরে সাড়ে ১৯ কেজির দাম হয় এক লাখ ৯০ হাজার টাকা। পাথরঘাটার মাছ ব্যবসায়ী অলিল খলিফা এই টাকা দিয়ে মাছটি কিনে নেন।”

ব্যবসায়ী অলিল খলিফা বলেন, “আমি এই মাছটি পাঁচ লাখ টাকা মণ দরে কিনেছি। এক কেজির দাম পড়েছে নয় হাজার ৭৪৩ টাকা। এই মাছ চট্টগ্রামে পাঠানো হবে। মাছটিতে বেশ লাভ হবে বলে আশা করছি।”

বাগেরহাটের জেলা মৎস্য কর্মকর্তা (ডিএফও) এ এস এম রাসেল সন্ধ্যায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এটি সামুদ্রিক মাছ, নাম জাবা ভোল। এর তিনটি রং হয়ে থাকে। গোল্ডেন, সিলভার ও অ্যাস ব্ল্যাক।

“এর মধ্যে গোল্ডেন কালারের দাম সবচেয়ে বেশি। জাবা ভোল মাছের ফুসফুস দিয়ে অস্ত্রোপচারের সুতা তৈরি করা হয়। এ ছাড়া এই মাছের স্যুপও খুব সুস্বাধু। বিদেশে নামি রেস্তোঁরায় চড়া দাম এই স্যুপের।”

মৎস্য কর্মকর্তা আরও বলেন, “জেলেদের জালে ধরা পড়া জাবা ভোল মাছটি ছিলো ছাই কালো রংয়ের। এই মাছটি যিনি কিনেছেন তিনি দাম পাবেন অন্তত চার থেকে সাড়ে চার লাখ টাকা।”

এই মাছ গভীর সমুদ্রে দলবেঁধে বিচরণ করে। দলছুট হয়ে যাওয়ার কারণে মাছটি জেলেদের জালে ধরা পড়েছে বলে ধারণা এই মৎস্য কর্মকর্তার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক