মাগুরায় স্কুলছাত্রের পায়ে পেরেক ঢুকিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ

নির্যাতনের মাধ্যমে জোর করে ভিডিও ধারণ করে শিশুটির কাছ থেকে চুরির স্বীকারোক্তি গ্রহণ করা হয় বলে জানান তার চাচা।

মাগুরা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 21 Jan 2023, 07:13 AM
Updated : 21 Jan 2023, 07:13 AM

মাগুরায় শালিখা উপজেলায় ‘চোর সন্দেহে’ এক স্কুলছাত্রের পায়ে লোহার পেরেক ঢুকিয়ে ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। 

শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার তালখড়ি ইউনিয়নের ছান্দড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে শালিখা থানার ওসি মো. বিশারুল ইসলাম জানিয়েছেন। 

নির্যাতনের শিকার ১২ বছর বয়সী শিশুটি স্থানীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র। তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে শালিখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

শিশুটির বাবা জানান, শুক্রবার জুমার নামাজ পড়তে তার ছেলে মসজিদে যায়। এ সময় এলাকার মুদি দোকানদার হাসান তার ছেলেকে চোর সন্দেহে আটকে রেখে নির্যাতন করে। পরে সন্ধ্যায় পুলিশের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

শিশুটির চাচা জানান, কয়েকদিন আগে ছান্দাড়া চৌরাস্তার পাশে হাসানের মুদি দোকানে চুরি হয়। এই ঘটনায় তারা চোর সন্দেহে তার ভাতিজাকে আটক করে নির্যাতন চালায়। তার পায়ের একাধিক স্থানে লোহার পেরেক ঢুকানো হয়। পাশাপাশি হাতুড়ি দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করা হয়। 

এ ছাড়া নির্যাতনের মাধ্যমে জোর করে ভিডিও ধারণ করে তার ভাতিজার কাছ থেকে চুরির স্বীকারোক্তি গ্রহণ করা হয় বলে জানান তিনি। 

শালিখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ফাহমিদা জামান স্নিগ্ধা জানান, গুরুতর আহত শিশুটির পায়ে ও শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

ওসি বিশারুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় অভিযোগ ওঠা দোকান মালিক হাসানকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক