ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে বজর্নকারীদের প্রত্যাখান: আরাফাত

“আমি যা কিছু করি না কেন ঢাকা-১৭ আসন আমার আগে,” স্থানীয় বাসিন্দাদের উদ্দেশে বলেন তিনি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Jan 2024, 06:57 PM
Updated : 17 Jan 2024, 06:57 PM

ভোট বিপ্লবের মাধ্যমে জনগণ নির্বাচন বর্জনকারীদের প্রত্যাখ্যান করেছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত।

বুধবার রাতে মানিকদী আদর্শ বিদ্যানিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজে এক মতবিনিময় সভায় এমন মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, "একটি গোষ্ঠী ভোট বর্জন করতে অগ্নিসন্ত্রাস করেছিল। ভোটের দিন তারা হরতাল ডেকেছিল। কিন্তু নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে সন্ত্রাস ও অগ্নিসন্ত্রাসের রাজনীতি দেশের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে।”

তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, "এই দল ও গোষ্ঠী গণতন্ত্রের বিপক্ষে, নির্বাচনের বিপক্ষে, বাংলাদেশের উন্নয়ন এবং অগ্রগতির বিপক্ষে। কাজেই তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করার জন্য আমরা ভোটারদের আহ্বান জানিয়েছিলাম। শত বাধা, হুমকি, ভয়-ভীতি, সন্ত্রাস সবকিছুকে না বলে ভোট বিপ্লব করেছে। গোটা বাংলাদেশ তাদেরকে না বলেছে।"

তিনি বলেন, "মানিকদীবাসীদের যতগুলো দাবি রয়েছে আমরা কিন্তু সেগুলো ধাপে ধাপে পূরণ করার চেষ্টা করছি এবং করব। আমি যা কিছু করি না কেন ঢাকা-১৭ আসন আমার আগে। আপনাদের ভোটের কারণে কিন্তু আমি আজকে প্রতিমন্ত্রী হতে পেরেছি এবং আপনাদের আসনের সংসদ সদস্য।

"আপনারা আমাকে উপ নির্বাচনে নির্বাচিত করেছেন এবং দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমাকে নির্বাচিত করেছেন। আপনারা আমার জন্য নির্বাচনে যে সময় দিয়েছেন, কষ্ট করেছেন সেজন্য আমরা বিগত দিনে উপনির্বাচনে যে ভোট পেয়েছিলাম এবার সংসদ নির্বাচনে তার দ্বিগুণ ভোট পেয়েছি।"

আরাফাত বলেন, "আমি এলাকার অনেক সমস্যার কথা শুনেছি। গ্যাস, বিদ্যুৎ, রাস্তাসহ অনেক সমস্যা রয়েছে। ইতোমধ্যে কয়েকটি রাস্তা আমি উদ্বোধন করেছি এবং আজ চারটি রাস্তার কাজের উদ্বোধন হয়েছে এবং আগামীকাল আমি আরও একটি রাস্তার কাজের উদ্বোধন করব।"

খুব শিগগির গ্যাস সমস্যার সমাধান হবে জানিয়ে তিনি বলেন, "প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের সকল নাগরিকের জন্য সকল সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে চান। তার নেতৃত্বে একজন কর্মী হিসেবে, বঙ্গবন্ধুর কর্মী হিসেবে আমি আপনাদের আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে আমি ইনশাল্লাহ আপনাদের সকল সমস্যা সমাধানের জন্য কাজ করব।"

প্রতিমন্ত্রী বলেন, "কিছু কিছু সংস্থা আছে যারা নির্বাচন নিয়ে কথা বলছে, নির্বাচন নিয়ে মন্তব্য করছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে হবে। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি, নির্বাচনে বিশ্বাস করি, মানুষের ভোটাধিকারে বিশ্বাস করি।

"বঙ্গবন্ধুকন্যার নেতৃত্বে এদেশে স্বাধীনভাবে আমরা চলব। কোনো অপশক্তি আমাদের দমিয়ে রাখতে পারবে না। বিদেশি কোনো রাষ্ট্রের কথায় আমাদের এই দেশ চলবে না। কাজেই আমাদেরকে মানবাধিকার আর গণতন্ত্রের জ্ঞান দেবে, আমাদেরকে কটাক্ষ করবে, এটার জবাব আমাদের দিতে হবে।"