নির্বাচন বাতিল ও তত্ত্বাবধায়কের দাবিতে বিএনপির গণসংযোগের কর্মসূচি ঘোষণা

এছাড়া ভারত ও মিয়ানমার সীমান্তে দেশ দুটির সীমান্তরক্ষীদের ছোড়া গুলিতে নিহত বাংলাদেশিদের জন্য ১৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বাদ জুমার নামাজের পর দেশের সব মসজিদে দোয়া করা হবে।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Feb 2024, 12:05 PM
Updated : 11 Feb 2024, 12:05 PM

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিল এবং নির্দলীয় সরকারের অধীনে নতুন নির্বাচনের দাবিতে গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণের কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপি। ভারত ও মিয়ানমার সীমান্তে নিহত বাংলাদেশিদের স্মরণে দোয়ার আয়োজনও করবে দলটি।

রোববার নয়া পল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

তিনি জানান, ১৩ ও ১৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকাসহ দেশের সব মহানগরে গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করবেন তারা। ১৭ ফেব্রুয়ারি সব জেলা শহরে এবং ১৮ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি সব উপজেলা, থানা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে পালিত হবে একই কর্মসূচি।

এছাড়া ১৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার বাদ জুমার নামাজের পর দেশের সব মসজিদে দোয়া করা হবে ভারত ও মিয়ানমার সীমান্তে দেশ দুটির সীমান্তরক্ষীদের ছোড়া গুলিতে নিহত বাংলাদেশিদের জন্য।

রিজভী বলেন, “দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ অন্যান্য নেতা-কর্মীদের মুক্তি, ‘একতরফা’ নির্বাচন বাতিল ও নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ‘এক দফা’ দাবিতে আমরা এই কর্মসূচি ঘোষণা করেছি।

“সারাদেশের সব নেতা-কর্মীদের কাছে আমাদের অনুরোধ... সকল বাধা অতিক্রম করে আপনারা ১৩, ১৪,১৭, ১৮ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি ঘোষিত গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণের কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবেন।”

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন বর্জনের পর বিএনপি সবশেষ গত ৩০ জানুয়ারি সংসদ অধিবেশনের শুরুর দিন ঢাকাসহ সারাদেশে কালো পতাকা মিছিলে কর্মসূচি পালন করে।

এর আগে গত বছরের ২৯ অক্টোবর থেকে ৭ জানুয়ারিতে ভোটের দিন পর্যন্ত দফায় দফায় হরতাল-অবরোধ কর্মসূচি দেয় দলটি। সে সব কর্মসূচিতে নানা ধরনের নাশকতায় হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল খালেক এবং কাজী সায়েদুল আলম বাবুল উপস্থিত ছিলেন।