এল ‘এডোলেসেন্ট হেলথ’, দেবে কৈশোরের স্বাস্থ্যসেবা

কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্যসেবার এই প্ল্যাটফর্মের স্লোগান- ‘দশ থেকে উনিশে, আমরা তোমার পাশে’।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 17 Jan 2023, 04:44 PM
Updated : 17 Jan 2023, 04:44 PM

বাংলাদেশের সাড়ে তিন কোটিরও বেশি কিশোর-কিশোরীর বয়ঃসন্ধিকালের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যসেবায় ওয়েবসাইট ও মোবাইল অ্যাপ ’এডোলেসেন্ট হেলথ’ চালু করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার ঢাকার আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) জাতীয় কৈশোর স্বাস্থ্য সম্মেলনে এই দুটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সম্মেলনে তিনি বলেন, “এই প্ল্যাটফর্মগুলো হচ্ছে বাংলাদেশে কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্যসেবা শক্তিশালী করতে সরকারের প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়নের প্রতিফলন।”

বয়ঃসন্ধিকাল এই রূপান্তরের সময় উল্লেখ করে বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি শেলডন ইয়েট বলেন, “এই অ্যাপটি তাদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেবে, যেগুলো তারা বাবা-মা, বন্ধু এমনকি স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীদের কাছে জিজ্ঞাসা করতে সাধারণত লজ্জা পেয়ে থাকে।”

ঢাকায় নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত আলেক্স বেই ফন লিন্ডে বলেন, “এই কৈশোর স্বাস্থ্য প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বাংলাদেশের লাখ লাখ মেয়ে ও ছেলের জীবন উন্নত করার সম্ভাবনা আছে। আমরা এই উদ্যোগের অংশ হতে পেরে আনন্দিত।”

সুইডিশ দূতাবাস ও ইউনিসেফের সহায়তায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর (ডিজিএফপি) ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর (ডিজিএইচএস) এই দিনব্যাপী সম্মেলনের আয়োজন করে।

সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন ডিজিএফপির মহাপরিচালক শাহান বানু এবং মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং সহযোগী সংস্থার কর্মকর্তারা।

সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত চলা এই সম্মেলনে দিনভর বিভিন্ন পর্বে বয়ঃসন্ধিকাল নিয়ে কয়েকটি গবেষণাপত্রের তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করা হয়। বয়ঃসন্ধি বেলার স্বাস্থ্য নিয়ে নীতিনির্ধারণী আলোচনা পর্বও রাখা হয়। বিআইসিসির সেলেব্রিটি হলে নতুন এই অ্যাপের ব্যবহার পদ্ধতিও দেখানো হয়।

আয়োজকদের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘এডোলেসেন্ট হেলথ’ বা কৈশোর স্বাস্থ্য ওয়েবসবাইট ও মোবাইল অ্যাপের লক্ষ্য হচ্ছে কিশোর-কিশোরীদের সচেতনতা বাড়ানো এবং তাদের জন্য শারীরিক-মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্য ও সেবার সহজপ্রাপ্তি নিশ্চিত করা।

সম্মেলনে আলোচকরা বলেন, বাংলাদেশে কিশোর-কিশোরীর সংখ্যা প্রায় তিন কোটি ৬০ লাখ। এই কিশোর-কিশোরীরা সঠিকভাবে বেড়ে ওঠা ও বিকাশের জন্য অপরিহার্য স্বাস্থ্যসেবা ও তথ্য প্রাপ্তির ক্ষেত্রে নানা ধরনের সামাজিক বাধা সম্মুখীন হয়ে থাকে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মানসিক স্বাস্থ্য ও মানসিক অসুস্থতা সম্পর্কে একদিকে যেমন রয়েছে সচেতনতার অভাব, অন্যদিকে কমিউনিটিতে ব্যাপক মাত্রায় প্রচলিত রয়েছে এ নিয়ে নানা নেতিবাচক ধ্যান-ধারনা ও কুসংস্কার। আর যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য সেবার ক্ষেত্রে মেয়ে ও ছেলে উভয়ের জন্যই বিশ্বাসযোগ্য তথ্য ও অত্যাবশ্যক সেবা খুঁজে পাওয়া আরও কঠিন হয়ে দাঁড়ায়।

কৈশোরবান্ধব স্বাস্থ্যসেবা দিতে এই প্ল্যাটফর্মের স্লোগান- ‘দশ থেকে উনিশে, আমরা তোমার পাশে’।

কিশোর-কিশোরীদের জন্য চালু করা এই দুটি স্বাস্থ্য প্ল্যাটফর্মে যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য এবং অধিকার, পুষ্টি, সহিংসতা এবং শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য সংক্রান্ত শিক্ষামূলক ও জেন্ডার-ভিত্তিক নির্দেশিকা ও কোর্সের পাশাপাশি কৈশোর-বান্ধব স্বাস্থ্যসেবা কীভাবে ও কোথায় পাওয়া যায় সেসব তথ্যও মিলবে।

এডেলোসেন্ট হেলথ ওয়েবসাইট ও অ্যাপের প্রচারে মহিলা শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয় দেশের সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কিশোর-কিশোরী ক্লাব, পিয়ার গ্রুপ বা বন্ধু দল এবং শিক্ষকদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হবে বলে জানানো হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক