২৫ বছর পর নির্মাতার ভূমিকায় জনি ডেপ

ইতালীয় চিত্রকরের আমেদেও মোদিলিয়ানির জীবনের ব্যর্থতা-হতাশা এবং সঙ্কট জয়ের ঘটনা নিয়ে সিনেমা তৈরির পরিকল্পনা সাজিয়েছেন গল্পকার ও নির্মাতা।

গ্লিটজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 August 2022, 08:32 AM
Updated : 18 August 2022, 08:32 AM

কিছুদিন আগে নিজেকে ‘আঁকিয়ে’ হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার পর এবার একজন চিত্রকরের জীবনকে পর্দায় নিয়ে আসছেন হলিউড অভিনেতা জনি ডেপ; তবে অভিনয়ে নয়, দীর্ঘ ২৫ বছর পর সিনেমা পরিচালনায় ফিরছেন তিনি।

পিংকভিলা এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, প্রখ্যাত ইতলীয় চিত্রশিল্পী আমেদেও মোদিলিয়ানির জীবনের ‘সংকট ও দুর্দশা জয়ের’ গল্প নিয়ে ‘মোদিলিয়ানি’ সিনেমায় ক্যামেরার পেছনের কাজে ফিরছেন ‘ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো’।

মাসখানেক ধরে নানা খবরে শিরোনাম হয়েছেন ডেপ। সাবেক স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের সঙ্গে মানহানি মামলায় তিনি জয় পেয়েছেন। কনসার্টে গান গেয়ে অ্যালবাম প্রকাশ করেছেন। নিজের আঁকা ছবি লন্ডনের ক্যাসল ফাইন আর্টের ৩৭টি গ্যালারির মাধ্যমে চড়া দামে বিক্রিও করেছেন।

এর মধ্যে আবার নতুন সিনেমার কাজেও নেমেছেন ডেপ। ‘জান দ্যু বারি’ সিনেমায় ফরাসি সম্রাট পঞ্চদশ লুই হয়ে তিন বছর পর অভিনয়ে ফিরছেন তিনি।

এর মধ্যেই সিনেমা পরিচালনার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করেছেন এই অভিনেতা। এর আগে ১৯৯৭ সালে ‘দ্য ব্রেভ’ সিনেমাটি পরিচালনা করেছিলেন তিনি। ওই সিনেমায় মার্লন ব্রান্ডোর সঙ্গে ডেপ নিজেও অভিনয় করেছিলেন।

জনি ডেপ ‘মোদিলিয়ানি’ সিনেমার একজন প্রজোযকও। সহ-প্রযোজক হিসেবে আছেন আল পাচিনো এবং ব্যারি নাভিদিও।

‘মোদিলিয়ানি’ নির্মাণ করা হচ্ছে ডেনিস ম্যাকইনটায়ার নাটকের পটভূমিতে। এর গল্প লিখেছেন চিত্রনাট্যকার জের্জি ও মেরি ক্রোমোলস্কি।

১৯১৬ সালের প্যারিসকে তুলে আনা হয়েছে সিনেমায়। ওই সময়ের চিত্রশিল্পী আমেদেও মোদিলিয়ানির জীবনের গল্প বলা হচ্ছে সেখানে।

মোদিলিয়ানি নানা কারণে তার শিল্পী জীবনে ব্যর্থ হয়েছেন, জীবন নিয়ে হতাশ সময় পার করেছেন। ওই অশান্ত সময়ে কোনো এক ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কিছু একটা ঘটে যায়, যা তার জীবনের বাঁক বদলে দেয়।

ওই ঘটনায় শেষ পর্যন্ত তিনি একজন কিংবদন্তী হয়ে ওঠেন। ইতালীয় এই চিত্রকরের সেই সময়টি নিয়েই সিনেমা তৈরির পরিকল্পনা সাজিয়েছেন গল্পকার ও নির্মাতা।

ডেপ বলেন, “চিত্রকর মোদিলিয়ানির গল্প চিত্রায়নের সুযোগ পেয়ে আমি সম্মানিত। তিনি কষ্টের মধ্যে জীবন কাটিয়েছেন, কিন্তু শেষ পর্যন্ত জয়ী হয়েছেন।… সিনেমাটির সঙ্গে সারা বিশ্বের দর্শক নিজেদের একাত্ম করতে পারবে।”

২০২৩ সালের বসন্তে ইউরোপে সিনেমাটির কাজ শুরুর পরিকল্পনা হয়েছে; শিগগিরই শিল্পী নির্বাচনে নামবেন পরিচালক।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক