আয়কর রিটার্ন জমার সময় বাড়ল ২ মাস

এছাড়া কোম্পানি করদাতাদের রিটার্ন জমার সময়ও বাড়ানো হয়েছে। এই শ্রেণির করদাতাদের রিটার্ন জমার শেষ সময় ছিল আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি; সেটি এখন ২৮ ফেব্রুয়ারি করা হয়েছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Nov 2023, 10:55 AM
Updated : 29 Nov 2023, 10:55 AM

ব্যক্তিশ্রেণির আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় দুই মাস বাড়িয়ে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত করা হয়েছে; ৩০ নভেম্বর ছিল রিটার্ন জমা দেওয়ার শেষ দিন।

বুধবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এক আদেশে এই সময় বাড়ানোর কথা জানায়।

দুই মাস সময় বাড়ানোর ফলে এখন আগামী বছরের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত ব্যক্তি পর্যায়ের করদাতারা কোনো জরিমানা ছাড়াই রিটার্ন দাখিল করতে পারবেন।

এছাড়া কোম্পানি করদাতাদের রিটার্ন জমার সময়ও বাড়ানো হয়েছে। এই শ্রেণির করদাতাদের রিটার্ন জমার শেষ সময় ছিল আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি; সেটি এখন ২৮ ফেব্রুয়ারি করা হয়েছে। 

এর আগে গত ২২ নভেম্বর দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ীদের সংগঠন এফবিসিসিআই রিটার্ন দাখিলের সময় এক মাস বাড়ানোর দাবি জানিয়ে এনবিআরে চিঠি পাঠিয়েছিল।

আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়াতে ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে অনুরোধের প্রেক্ষিতে করদাতাদের জরিমানা ছাড়া রিটার্ন দাখিলের সময় ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বা এক মাস বাড়ানোর অনুরোধ জানায় এফবিসিসিআই।

তারও আগে গত ৮ নভেম্বর ঢাকা ট্যাক্সেস বার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ উজ জামান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে রিটার্ন দাখিলের সময় দুই মাস বাড়ানোর দাবি জানানো হয়েছিল।

এনবিআরের আয়কর অনুবিভাগের একজন কর্মকর্তা জানান, বর্তমানে দেশে ৯৪ লাখের বেশি কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) রয়েছে। এরমধ্যে সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, মাত্র ২০ লাখেরও কম রিটার্ন জমা পড়েছে।

চলতি অর্থবছর ৪০ লাখ রিটার্ন জমার লক্ষ্য ঠিক করেছে রাজস্ব বোর্ড।  গত ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৩৫ লাখ ২৯ হাজার রিটার্ন জমা পড়েছিল।

এনবিআর এর ওই কর্মকর্তা জানান, প্রত্যেক বছর রিটার্ন দাখিলের সেবার মাস নভেম্বরেই মূলত সিংহভাগ ব্যক্তি আয়কর রিটার্ন জমা পড়ে। কিন্তু এবার পুরো নভেম্বর মাস জুড়েই রাজনৈতিক অস্থিরতা, অবরোধ ও হরতাল থাকায় সাধারণ মানুষের চলাফেরায় নানা রকম প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হয়। তার প্রভাবও পড়েছে রিটার্ন দাখিলে। এখনও পর্যন্ত ২০ লাখ রিটার্ন জমা পড়েনি।

“এফবিসিসিআই ও কর আইনজিবী সমিতির পক্ষ থেকেও সময় বাড়ানোর দাবি ছিল। তাই সার্বিকভাবে পরিস্থিতি বিবেচনায় এবার দুই মাস সময় বাড়ানো হল,” বলেন এই কর্মকর্তা।