চবিতে আরেক নিপীড়নের ঘটনায় ৪ ছাত্রকে বহিষ্কার

সর্বশেষ যৌন নিপীড়নের ঘটনায় দুই ছাত্র আজিম ও নুরুল আবছার বাবুকে চিরতরে বহিষ্কারের কথা শনিবার জানিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 July 2022, 02:10 PM
Updated : 25 July 2022, 02:10 PM

বছর খানেক আগে দুই ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় চার শিক্ষার্থীকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করার কথা জানিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সোমবার উপাচার্যের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম মনিরুল হাসান এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

বহিষ্কৃতরা হলেন- আরবি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মো. জুনায়েদ, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রুবেল হাসান, দর্শন বিভাগের একই বর্ষের ইমন আহাম্মেদ ও আর এইচ রাজু।

তারা চারজনই বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল হক রুবেলের অনুসারী হিসেবে ক্যাম্পাসে পরিচিত। ২০২১ সালের ২১ সেপ্টেম্বর রাত ১১টার দিকে ক্যাম্পাসে দুই ছাত্রীকে ওই নিপীড়নের ঘটনা ঘটেছিল।

সম্প্রতি আরেক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের পর উত্তাল ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীরা যে চার দাবি জানিয়েছিল, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সেসব মেনে নিয়েছে জানিয়ে রেজিস্ট্রার মনিরুল বলেন, ছাত্রছাত্রীদের দাবি অনুযায়ী, যৌন নিপীড়ন ও নির্যাতন বিরোধী সেলের আরও দুইটি ঘটনা লিখিত মুচলেকার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা হয়েছে।

“একটি ইনস্টিটিউট অব ফরেস্টি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট সায়েন্সের অধ্যাপক এ টি এম রফিকুল হকের বিরুদ্ধে ছাত্রছাত্রীদের আনীত অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে কঠোরভাবে লিখিত সতর্ক করা হয়েছে।

“অন্যটি হচ্ছে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া হলের এক ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের এক ছাত্র কর্তৃক হেনস্তা করা সংক্রান্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে ওই ছাত্রকে কঠোরভাবে লিখিত সতর্ক করা হয়েছে।”

Also Read: চবিতে যৌন নিপীড়ন: দুই ছাত্রকে চিরতরে বহিষ্কার

গত ১৭ জুলাই রাতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের হতাশার মোড় থেকে হলে ফেরার পথে এক ছাত্রী ও তার বন্ধুকে আটকে বোটানিক্যাল গার্ডেন এলাকায় নিয়ে যৌন নিপীড়ন করে কয়েকজন। ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টাও করা হয় বলে অভিযোগ।

এই ঘটনায় শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ-বিক্ষোভের মধ্যে শুক্রবার রাতে নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে চারজন এবং শনিবার বহদ্দারহাট এলাকা একজনকে গ্রেপ্তারের কথা জানায় র‌্যাব।

তাদের মধ্যে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আজিম ও নুরুল আবছার বাবুকে চিরতরে বহিষ্কারের কথা শনিবার জানায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ দুজনও ছাত্রলীগের কর্মী বলে জিজ্ঞাসাবাদের বরাতে র‌্যাব জানিয়েছিল।

গ্রেপ্তার পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদে সাত দিনের হেফাজতে চেয়েছে পুলিশ, যেটির শুনানি হবে আগামী মঙ্গলবার।

Also Read: চবিতে যৌন নিপীড়ন: গ্রেপ্তারদের রিমান্ড শুনানি মঙ্গলবার

বোটানিক্যাল গার্ডেন এলাকার ওই ঘটনায় গত ২০ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বৈঠক করে ছাত্রীদের রাত ১০টার মধ্যে হলে প্রবেশের নির্দেশনা দিলে ক্ষোভ আরও বাড়ে। ওই দিন রাতেই ওই হলের ছাত্রীরা ভিসির বাংলোর সামনে অবস্থান নেয়। পরে দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে রাত সাড়ে ১২টার পর ছাত্রীরাহলে ফিরে যান।

সংবাদ সম্মেলন উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার বলেন, শিক্ষার্থীদের চার দফা দাবি মনে নেওয়া হয়েছে এবং তা ইতোমধ্যে পূরণ করা হয়েছে।

“যৌন নিপীড়ন সেল ও ডিসিপ্লিনারি কমিটির মাধ্যমে দোষীদের শাস্তি দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস এখন শিক্ষার্থীদের জন্য শতভাগ নিরাপদ।”

সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক বেনু কুমার দে, প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া উপস্থিত ছিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক