রাহুলের ব্যাটে সিরিজ ভারতের

কম রানের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৪ উইকেটে জিতল রোহিত শর্মার দল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 Jan 2023, 03:56 PM
Updated : 12 Jan 2023, 03:56 PM

স্রেফ ১ উইকেট হারিয়ে সপ্তদশ ওভারে দলীয় রান স্পর্শ করল একশ। সামনে বড় সংগ্রহের হাতছানি। কিন্তু ব্যাটিং ধসে শ্রীলঙ্কা কোনোমত ছাড়াতে পারল দুইশ। ভারতের রান তাড়াও অবশ্য সহজ হলো না। লোকেশ রাহুলের লড়িয়ে ফিফটিতে জিতে এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ নিজেদের করে নিল রোহিত শর্মার দল।

কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ভারতের জয় ৪ উইকেটে। ২১৬ রানের লক্ষ্য তারা পেরিয়ে যায় ৪০ বল বাকি থাকতে।

শ্রীলঙ্কার হয়ে অভিষেকে ব্যাট হাতে আলো ছড়ান নুয়ানিদু ফার্নান্দো। এই ওপেনার ৬৩ বলে খেলেন ৫০ রানের ইনিংস। আর কেউ চল্লিশে যেতে পারেননি।

সফরকারীদের অল্পতে বেঁধে রাখতে বল হাতে পেসার মোহাম্মদ সিরাজ ৩০ রানে নেন ৩ উইকেট। সিরিজে প্রথম খেলতে নেমে ১০ ওভারে ৫১ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা অবশ্য রিস্ট স্পিনার কুলদিপ যাদব। ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন যে তিনিই।

পরে পাঁচ নম্বরে নেমে ১০৩ বলে অপরাজিত ৬৪ রানের ইনিংসে দলের জয় নিয়ে ফেরেন রাহুল।

শ্রীলঙ্কা ব্যাটিংয়ে নামে টস জিতে। ইনিংসের প্রথম বলে মোহাম্মদ শামিকে চার মেরে শুরু করেন আভিশকা ফার্নান্দো। এরপর তিনি টানা তিনটি বাউন্ডারি মারেন সিরাজকে। নিজের পরের ওভারে ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করে প্রতিশোধ নেন ভারতীয় পেসার।

অভিষিক্ত নুয়ানিদু ১১ বলে রানের খাতা খোলেন শামিকে চার মেরে। প্রথম ২০ বলে তার রান ছিল কেবল ৬। এরপর ডানা মেলে দেন তিনি। কুসল মেন্ডিসের সঙ্গে জমে ওঠে তার জুটি।

দলীয় স্কোর শতরান ছোঁয়ার পরপরই কুলদিপের গুগলিতে পরাস্ত মেন্ডিস এলবিডব্লিউ হন ৩৪ বলে ৩৪ রান করে। শ্রীলঙ্কার পথ হারানোর শুরুও সেখানেই।

ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা প্রথম বলে আউট হন বাঁহাতি স্পিনার আকসার প্যাটেলের বলে বোল্ড হয়ে। ৬১ বলে পঞ্চাশ ছোঁয়ার পরপরই নুয়ানিদু কাটা পড়েন রান আউটে।

কুলদিপ এরপর টানা দুই ওভারে বিদায় করে দেন আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান দাসুন শানাকা ও চারিথ আসালাঙ্কাকে। ভানিন্দু হাসারাঙ্গা ১৭ বলে ২ চার ও এক ছক্কায় ২১ রান করে ক্যাচ দেন উমরান মালিকের ১৪৫ কিলোমিটার গতির ডেলিভারিতে।

১ উইকেটে ১০২ থেকে শ্রীলঙ্কার স্কোর হয়ে যায় ৭ উইকেটে ১৫২। ৫০ রানের মধ্যেই নেই ৬ উইকেট!

সেখান থেকে তারা দুইশ ছাড়াতে পারে মূলত তিন বোলার দুনিথ ভেল্লালাগের ৩৪ বলে ৩২, চামিকা করুনারত্নে ও কাসুন রাজিথার ১৭ রানের দুটি ইনিংসে।

রান তাড়ায় রোহিত ও শুবমান গিল শুরুটা করেন ইতিবাচক। প্রথম ৪ ওভারে দুজন তুলে ফেলেন ৩০ রান। তবে দুই জনই বিদায় নেন পরের দুই ওভারে। রোহিত ২১ বলে ১৭ ও গিল ১২ বলে করেন ২১ রান।

টিকতে পারেননি বিরাট কোহলি। তাকে বোল্ড করে দেন লাহিরু কুমারা। টানা দুই ওয়ানডেতে সেঞ্চুরির পর ৩৪ বছর বয়সী ব্যাটসম্যান এবার করেন কেবল ৪ রান।

ভালো শুরু করলেও ইনিংস টেনে নিতে পারেননি শ্রেয়াস আইয়ার। ৩৩ বলে ২৮ রান করে বিদায় নেন তিনি। পঞ্চদশ ওভারে ৮৪ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ভারত।

রাহুল এরপর দলকে এগিয়ে নেন পান্ডিয়ার সঙ্গে পঞ্চাশোর্ধ জুটিতে। পান্ডিয়াকে (৫৩ বলে ৩৬) ফিরিয়ে ৭৫ রানের জুটি ভেঙে শ্রীলঙ্কা শিবিরে খানিকটা আশা জাগান করুনারত্নে।

শেষ পর্যন্ত অবশ্য নাটকীয় কিছু হয়নি। আকসারের (২১) সঙ্গে ৩০ ও কুলদিপের (১০) সঙ্গে ২৮ রানের দুটি জুটিতে দলকে কাঙ্ক্ষিত ঠিকানায় নিয়ে যান রাহুল।

এই সফরে টি-টোয়েন্টির পর ওয়ানডে সিরিজও হারল শ্রীলঙ্কা। আগামী রোববার শেষ ম্যাচে তাদের সামনে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর চ্যালেঞ্জ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ৩৯.৪ ওভারে ২১৫ (আভিশকা ফার্নান্দো ২০, নুয়ানিদু ফার্নান্দো ৫০, মেন্ডিস ৩৪, ধনাঞ্জয়া ০, আসালাঙ্কা ১৫, শানাকা ২, হাসারাঙ্গা ২১, ভেল্লালাগে ৩২, করুনারত্নে ১৭, রাজিথা ১৭*, কুমারা ০; শামি ৭-০-৪৩-০, সিরাজ ৫.৪-০-৩০-৩, পান্ডিয়া ৫-০-২৬-০, উমরান ৭-০-৪৮-২, কুলদিপ ১০-০-৫১-৩, আকসার ৫-০-১৬-১)

ভারত: ৪৩.২ ওভারে ২১৯/৬ (রোহিত ১৭, গিল ২১, কোহলি ৪, শ্রেয়াস ২৮, রাহুল ৬৪*, পান্ডিয়া ৩৬, আকসার ২১, কুলদিপ ১০*; রাজিথা ৯-০-২৪৬-১, কুমারা ৯.২-০-৬৪-২, করুনারত্নে ৮-০-৫১-২, হাসারাঙ্গা ১০-০-২৮-০, ভেল্লালাগে ২-০-১২-০, শানাকা ২-০-৬-০, ধনাঞ্জয়া ৩-০-৯-১)

ফল: ভারত ৪ উইকেটে জয়ী

সিরিজ: তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুটির পর ২-০তে এগিয়ে ভারত

ম্যান অব দা ম্যাচ: কুলদিপ যাদব

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক