গিলের সেঞ্চুরির পর ইংল্যান্ডের আক্রমণাত্মক শুরু

জয়ের জন্য শেষ দুই দিনে ইংল্যান্ডের দরকার ৩৩২ রান, ভারতের চাই ৯ উইকেট।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Feb 2024, 12:41 PM
Updated : 4 Feb 2024, 12:41 PM

টেস্টে কঠিন সময় কাটানো শুবমান গিল পেলেন রানের দেখা। ওয়ানডে ঘরানার ব্যাটিংয়ে করলেন ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি। ভারত পেল প্রায় চারশ রানের লিড। কঠিন লক্ষ্য তাড়ায় তৃতীয় দিন শেষ বেলায় ইংল্যান্ডের শুরুটা হলো ইতিবাচক। 

বিশাখাপাত্নাম টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শেষে সফরকারীদের রান ১ উইকেটে ৬৭। এক ছক্কা ও তিন চারে ৫০ বলে ২৯ রানে খেলছেন জ্যাক ক্রলি। নাইটওয়াচম্যান রেহান আহমেদের রান দুই চারে ৮ বলে ৯। 

দ্বিতীয় ইনিংসে এদিন শেষের ব্যাটিং ব্যর্থতায় ২৫৫ রানে গুটিয়ে যায় ভারত। তাতে ইংল্যান্ডের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩৯৯ রানের। শেষ দুই দিনে ইংলিশদের চাই আরও ৩৩২ রান, ভারতের ৯ উইকেট। 

রোববার শেষ বেলায় ১৪ ওভারে কেবল একটি উইকেট নিতে পেরেছে স্বাগতিকরা। একাদশ ওভারে বেন ডাকেটকে কট বিহাইন্ড করে ৫০ রানের উদ্বোধনী জুটি ভেঙেছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডকে ধসিয়ে দেওয়া পেসার জাসপ্রিত বুমরাহকে এদিন দেখে শুনে খেলেছেন দুই ইংলিশ ওপেনার।  

গত মার্চে আহমেদাবাদ টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১২৮ রানের ইনিংস খেলেছিলেন গিল। এরপর আর বড় রানের দেখা পাচ্ছিলেন না তিনি। পরের ১২ ইনিংসে একবারও যেতে পারেননি চল্লিশ পর্যন্ত। এবার ৪ রানে রিভিউ নিয়ে বেঁচে যাওয়ার পর ১৪৭ বলে দুই ছক্কা ও ১১ চারে খেললেন ১০৪ রানের ইনিংস।

আগের দিনের রানেই রোহিত শার্মা ফিরলে দিনের দ্বিতীয় ওভারে ক্রিজে আসেন গিল। সে সময় অভিজ্ঞ পেসার জেমস অ্যান্ডারসন কঠিন পরীক্ষা নিচ্ছিলেন ব্যাটসম্যানদের। সেটায় উতরে যান গিল, তবে পারেননি ইয়াশাসবি জয়সাওয়াল। রোহিতের পর প্রথম ইনিংসের ডাবল সেঞ্চুরিয়ানও ফেরেন দ্রুত। 

শ্রেয়াস আইয়ারের সঙ্গে ৮১ রানের জুটিতে ধাক্কা সামাল দিয়ে দলকে এগিয়ে নেন গিল। রানের চাকা সচল থাকে মূলত তার আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়েই। স্পিনারদের ওপর চড়াও হয়ে পঞ্চাশ স্পর্শ করেন তিনি ৬০ বলে।

লংঅফের দিকে ছুটে গিয়ে দুর্দান্ত ক্যাচ নিয়ে শ্রেয়াসকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন বেন স্টোকস। রাজাত পাতিদারকে দ্রুত ফেরান রেহান। গিল ও আকসার প্যাটেলের ৮৯ রানের জুটিতে দুইশ ছাড়ায় ভারতের সংগ্রহ। এক সময় তাদের রান ছিল ৪ উইকেটে ২১১। মনে হচ্ছিল, চারশ ছাড়ানো লিডও সম্ভব।

শোয়েব বাশিরের বলে কট বিহাইন্ডের রিভিউ নিয়ে গিলকে বিদায় করে ঘুরে দাঁড়ায় ইংল্যান্ড। ৪৪ রানে তুলে নেয় স্বাগতিকদের শেষ ৬ উইকেট। 

৬ চারে ৪৫ রান করা আকসারকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন হার্টলি। শেষ ৫ ব্যাটসম্যানের মধ্যে দুই অঙ্কে যেতে পারেন কেবল অশ্বিন (২৯)। তার ব্যাটে ২৫৫ পর্যন্ত যায় ভারত। 

৭৭ রানে ৪ উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সফলতম বোলার হার্টলি। রেহান ৩ উইকেট নেন ৮৮ রানে। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ভারত ১ম ইনিংস: ৩৯৬ 

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ২৫৩ 

ভারত ২য় ইনিংস: (আগের দিন ২৮/০) ৭৮.৩ ওভারে ২৫৫ (জয়সওয়াল ১৭, রোহিত ১৩, গিল ১০৪, শ্রেয়াস ২৯, পাতিদার ৯, আকসার ৪৫, ভারত ৬, অশ্বিন ২৯, কুলদিপ ০, বুমরাহ ০, মুকেশ ০; অ্যান্ডারসন ১০-১-২৯-২, বাশির ১৫-০-৫৮-১, রেহান ২৪.৩-৫-৮৮-৩, রুট ২-১-১-০, হার্টলি ২৭-৩-৭৭-৪) 

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৩৯৯) ১৪ ওভারে ৬৭/১ (ক্রলি ২৯*, ডাকেট ২৮, রেহান ৯*; বুমরাহ ৫-১-৯-০, মুকেশ ২-০-১৯-০, কুলদিপ ৪-০-২১-০, অশ্বিন ২-০-৮-১, আকসার ১-০-১০-০)