আগারগাঁওয়ে শুরু ‘হলিডে মার্কেট’, হবে ৫৪ ওয়ার্ডেই: আতিকুল

আগারগাঁওয়ের আইসিটি সড়কের উত্তর ও দক্ষিণ পাশে গাড়ি রাখার বিস্তৃত জায়গায় ১০০টি স্টল থাকছে হলিডে মার্কেটে। সিএমএসএমই উদ্যোক্তারা যেখানে তাদের পসরা সাজিয়ে বসবেন বিক্রির জন্য।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Jan 2023, 10:25 AM
Updated : 13 Jan 2023, 10:25 AM

দেশের কুটিরশিল্প, ক্ষুদ্র ও মাঝারি (সিএমএসএমই) উদ্যোক্তাদের নানা ধরনের পণ্য ও খাদ্যপণ্য নিয়ে রাজধানীতে চালু হল ‘ডিএনসিসি–ঐক্য হলিডে মার্কেট’।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আগারগাঁওয়ের আইসিটি রোডে এই ‘হলিডে মার্কেট’ উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

মার্কেট সুন্দরভাবে চালিয়ে নিতে উত্তর সিটির কর্পোরেশনের উদ্দেশে তিনি বলেন, “কোনোভাবেই যেন এর মিস ম্যানেজমেন্ট না হয়। আর এর পরিধি আরও বাড়িয়ে সুন্দরভাবে পরিচালনা করার উদ্যোগ নিতে হবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনকে।"

আগারগাঁও দিয়ে শুরু হওয়া এই মার্কেট’ ঢাকা উত্তর সিটির ৫৪টি ওয়ার্ডেই চালু হবে বলে উদ্বোধোনী আয়োজনে জানান উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, "এই হলিডে মার্কেট আমাদের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতিতে ছিল। আগামীতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৫৪টি ওয়ার্ডেই আমরা এমন হলিডে মার্কেট করার উদ্যোগ নিচ্ছি। খুব দ্রুতই এটা বাস্তবায়ন করা হবে।"

পাইলট প্রকল্প হিসেবে আগারগাঁওয়ের রাস্তায় হলিডে এই মার্কেট খোলা হয়েছে জানিয়ে আতিকুল ইসলাম বলেন "এসএমই উদ্যোক্তাদের পণ্য বিক্রি ও বিপণন এবং এসএমই খাতকে এগিয়ে নিতে ডিএনসিসি এবং ঐক্য ফাউন্ডেশন প্রথমবারের মত এই মার্কেটের আয়োজন করেছে।“

এখন থেকে সপ্তাহে দুই ছুটির দিন শুক্র এবং শনিবারে এই মার্কেট বসবে। আইসিটি সড়কের উত্তর ও দক্ষিণ– দুই ধারে গাড়ি রাখার বিস্তৃত জায়গায় এই মার্কেটে দোকান সাজিয়ে বসবেন দোকানিরা।

সড়কের দুই পাশে ৫০টি করে মোট ১০০টি স্টল থাকছে এ মার্কেটে। এসএমই উদ্যোক্তারা তাদের পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসবেন সেখানে।

হলিডে মার্কেট চালুর উদ্যোগকে ‘সাধুবাদ’ জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, "এমন সব উদ্যোগে নারী উদ্যোক্তাদের আরও সম্পৃক্ত করুন। আমাদের দেশে অর্ধেক নারী, আর ভোটার হিসেবে বিবেচনা করলে কিঞ্চিৎ বেশি। তাই এই নারীদের পেছনে রেখে আমরা বেশিদূর এগোতে পারব না। তাদের সব কিছুতে সম্পৃক্ত করতে হবে। তাদের মাধ্যমে আমরা আরও এগিয়ে যেতে পারব।"

উদ্বোধনী দিনে মার্কেট ঘুরে দেখা যায়, কুটিরশিল্প, মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা তাদের পণ্য ও খাদ্যপণ্য নিয়ে দোকান সাজিয়েছেন। চামড়া ও পাটজাত পণ্য, হস্তশিল্প, ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল পণ্য, হোমডেকর পণ্য রেখেছেন দোকানির। এছাড়া অর্গানিক কৃষিপণ্য, পার্বত্য অঞ্চলের কৃষি ও খাদ্য পণ্য এবং পানীয়ও রেখেছেন কেউ কেউ । সেই সঙ্গে আছে নার্সারিও।

উদ্বোধনের পর থেকেই মার্কেট প্রাঙ্গণে লোকজনের আনোগোনা শুরু হয়। দোকান সাজিয়ে বসাদের মধ্যে নারী উদ্যোক্তাদের অংশগ্রহণ ছিল বেশি।

‘কারুশিল্প’ নামের একটি দোকানের তহুরা বানু ইতি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, "আমাদের দেশের বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতির ঐতিহ্য বহন করা হাতে বোনা পোশাক নিয়ে আমার দোকান সাজিয়েছি৷ ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য, বিশেষ করে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য নিজেদের পণ্য প্রদর্শনের এমন সুযোগ অত্যন্ত সুন্দর। মানুষ আসছেন। নিয়মিত ও গোছানোভাবে চালানো হলে এই মেলা থেকে ভাল কিছু ফল আসবে৷"

মার্কেটে পণ্য দেখতে আসা গৃহিণী শাহনাজ পারভীন বলেন, "এখানে অর্গানিক অনেক খাবার– যেমন চা পাতা, মাশরুম, ভালো ব্যাগ, কাপড় অনেক কিছু আছে। উদ্যোগটা ভালো। ছুটির দিনে টুকটাক কেনাকাটার জন্য আসা যাবে।"

অন্যদের মধ্যে ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মীর রেজাউল আলম, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজাসহ স্থানীয় কাউন্সিলররা মার্কেটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক