মুক্তিযুদ্ধের গল্প বলা ভারতীয় সাংবাদিক গীতা মেহতার চিরবিদায়

মুক্তিযুদ্ধের সময় যুদ্ধ সংবাদদাতা হিসেবে তিনি বাংলাদেশে কাজ করেন।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Jan 2024, 11:51 AM
Updated : 27 Jan 2024, 11:51 AM

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ দেখার অভিজ্ঞতা তথ্যচিত্রে ফ্রেমবন্দি করে যাওয়া ভারতীয় সাংবাদিক গীতা মেহতা আর নেই।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শনিবার নয়া দিল্লির বাসায় মৃত্যু হয় তার। ৮০ বছর বয়সী গীতা বার্ধক্যজনিত নানা অসুস্থতায় ভুগছিলেন।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের ওড়িশা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কের বড় বোন গীতা মেহতার জন্ম ১৯৪৩ সালে দিল্লিতে। তার প্রকাশক স্বামী সনি মেহতা আগেই মারা গেছেন। এক ছেলেকে রেখে গেছেন এই দম্পতি।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা করা গীতা মেহতা ১৯৭০-৭১ সালে মার্কিন টেলিভিশন নেটওয়ার্ক এনবিসির হয়ে কাজ করেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় যুদ্ধ সংবাদদাতা হিসেবে বাংলাদেশেও কাজ করেন তিনি। সেই অভিজ্ঞতা তিনি বর্ণনা করে গেছেন তার তথ্যচিত্র ‘ডেটলাইন বাংলাদেশ’-এ।

‘কার্মা কোলা’, ‘স্নেক অ্যান্ড ল্যাডারস’, ‘আ রিভার সূত্রা’, ‘রাজ’ এবং ‘দ্য ইটারনাল গণেশা’-সহ বেশ কিছু বই লিখেছেন গীতা মেহতা।

তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্স এ লিখেছেন, “লেখিকা শ্রমতি গীতা মেহতাজির মৃত্যুতে আমি শোকাহত। তিনি ছিলেন বহুমুখী ব্যক্তিত্বের অধিকারী। লেখালেখির পাশাপাশি চলচ্চিত্র নির্মাণে আগ্রহের জন্য পরিচিত ছিলেন। প্রকৃতি ও পানি সংরক্ষণেও তিনি ছিলেন সোচ্চার।” 

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)