তেলের দাম কমার সুফল পাবে কেবল বাস মালিক: যাত্রী কল্যাণ সমিতি

আগেও ৩ বা ৫ পয়সা করে ভাড়া কমানোর সুফল মেলেনি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 April 2024, 11:16 AM
Updated : 1 April 2024, 11:16 AM

জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয়ের পর বাস ভাড়া কিলোমিটারে ৩ পয়সা কমানোর সিদ্ধান্তকে ‘জাতির সঙ্গে তামাশা’ বলেছে যাত্রী কল্যাণ সমিতি। তারা বলছে, এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা যাবে না। তেলের দাম কমানোর সুফল পাবে বাস মালিকরা।

ডিজেলের দাম লিটারে ২ টাকা ২৫ পয়সা করে কমানোর পর সোমবার বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বাসের ভাড়া সমন্বয়ের সুপারিশ চূড়ান্ত করেছে। সেই সুপারিশ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। তারাই ভাড়া কমানোর বিষয়টি চূড়ান্ত করবে।

এর পর যাত্রী কল্যাণ কমিটির বার্তাটি গণমাধ্যমে আসে।

এতে বলা হয়, “জ্বালানি তেলের মূল্য কমানোর হিস্যা অনুযায়ী বাস ভাড়া কমানোর পরিবর্তে প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা কমিয়ে সরকার দেশের যাত্রী সাধারণের সঙ্গে তামাশা করছে।”

অবশ্য জ্বালানি তেলের দাম যে হারে কমেছে তাতে বাস ভাড়া কী পরিমাণ কমা তাদের দৃষ্টিতে যুক্তিযুক্ত হতো- এই প্রশ্নে সুনির্দিষ্ট কিছু বলতে পারেননি সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী।

বিশ্ব বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয়ের নীতি নেওয়ার পর থেকে সরকার দুই দফায় তেলের দাম সমন্বয় করেছে। এই দুই দফায় ডিজেলের দাম কমেছে মোট ৩ টাকা। 

লিটার প্রতি ডিজেলের দাম এই পরিমাণ কমানোর পর বাস ভাড়া কতটা কমা যুক্তিযুক্ত হত- এই প্রশ্নে মোজাম্মেল বলেন, “এটা ব্যয় বিশ্লেষণ কমিটিতে তো আমরা নাই। তারা কী বিশ্লেষণ করে তা তো জানি না। যখন ছিলাম, তারা অযৌক্তিক হিসাব নিকাশ করে।”

যদি সেটা নাই জানবেন, তাহলে ভাড়া কমানোর হারকে ‘তামাশা’ কেন বলছেন- এই প্রশ্নে তিনি বলেন, “আমরা মনে করি এই ভাড়া কমানোর সুফল জনগণ পাবে না। এর আগে ২০১১ সালে ২ পয়সা, ২০১৬ সালেও ৩ পয়সা ভাড়া কমানোর ঘোষণা এসেছিল। কিন্তু বাসের ভাড়া কমেনি। তেলের দাম কমানোর সুবিধা পাবে বাস মালিকরা। এ জন্যই আমরা তামাশা বলছি।”

যাত্রী কল্যাণ সমিতির বিবৃতিতে বলা হয়, “এই যে ভাড়া কমানো হচ্ছে, সেটি কার্যকর যোগ্য নয়। জ্বালানি তেলের মূল্য কমানোর সুফল কেবল বাস ও অন্যান্য পরিবহনের মালিকেরা ভোগ করলেও জনগণ বঞ্চিত হবে।”

বিবৃতিতে তেলের দাম অবিলম্বে উল্লেখযোগ্য হারে তেলের দাম কমিয়ে নাগরিকদের ‘সামর্থ্য বিবেচনায়’ গণপরিবহন ভাড়াও ‘উল্লেখযোগ্য হারে’ কমিয়ে আনার দাবি জানায় সংগঠনটি।

সবশেষ ২০২২ সালের ৩১ অগাস্ট ডিজেলের দাম লিটারে ৫ টাকা কমানোর পর বাসের ভাড়াও কমানো হয়।

সেদিন দূরপাল্লার বাসের ভাড়া ২ টাকা ২০ পয়সা থেকে কমিয়ে ২ টাকা ১৫ পয়সা। আর ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে বাস ভাড়া কিলোমিটারে ২ টাকা ৫০ পয়সা থেকে কমিয়ে ২ টাকা ৪৫ পয়সা নির্ধারণ করা হয়। তবে এই ভাড়া কমানোর সুফলও মেলেনি।

Also Read: ডিজেলচালিত বাসের ভাড়া কিলোমিটারে ৩ পয়সা কমানোর সুপারিশ

Also Read: জ্বালানি তেলের দাম কমায় কার কতটা লাভ হল?

Also Read: ডিজেলের দাম ৭৫ পয়সা, পেট্রোল ৩ টাকা, অকটেন ৪ টাকা কমল