সুইডেনের ইসরায়েলি দূতাবাসে ‘হামলার চেষ্টা’ নস্যাৎ

স্টকহোমে ইসরায়েলের দূতাবাসের বাইরে একটি ‘বিপজ্জনক বস্তু’ ধ্বংস করেছে সুইডিশ পুলিশ। এটি ‘হামলার চেষ্টা’ ছিল- বলছেন সুইডেনে নিযুক্ত ইসরায়েলের রাষ্ট্রদূত।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Jan 2024, 05:37 PM
Updated : 31 Jan 2024, 05:37 PM

সুইডেনের পুলিশ জানিয়েছে, রাজধানী স্টকহোমে ইসরায়েলের দূতাবাসের বাইরে পাওয়া একটি ‘বিপজ্জনক বস্তু’ ধ্বংস করেছে তারা। সুইডেনে নিযুক্ত ইসরায়েলের রাষ্ট্রদূত এমন বস্তু পাওয়ার ঘটনাকে দূতাবাস এবং এর কর্মীদের ওপর ‘হামলার চেষ্টা’ বলেই অভিহিত করেছেন।

বিপজ্জনক বস্তুটি বিস্ফোরক ডিভাইস ছিল বলে ধারণা করছে সুইডিশ পুলিশ। তারা বলছে, বুধবার ইসরায়েলি দূতাবাসের বাইরে এটি খুঁজে পাওয়ার পর জাতীয় বোমা স্কোয়াড সেটি নিস্ক্রিয় করেছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বস্তুটির বিষয়ে পুলিশকে খবর দিয়েছিলেন দূতাবাসের স্টাফরা। এরপরই আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা বড় ধরনের পদক্ষেপ নেয়। স্থানীয় কয়েকটি খবরে বলা হয়েছে, লোকজনকে নিরাপদে রাখতে দূতাবাসের চারপাশে ১০০ মিটার এলাকা ঘিরে ফেলা হয়।

পরে সেই বস্তুটি নিয়ন্ত্রিতভাবে নিস্ক্রিয় করার কথা টিভিআর সম্প্রচারমাধ্যমে জানান পুলিশের মুখপাত্র। বিবিসি-কে পুলিশ বলেছে, বস্তুটি সম্পর্কে এখনই বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না।

ওদিকে, এক্স প্লাটফর্মে সুইডেনে নিযুক্ত ইসরায়েলের রাষ্ট্রদূত জিভ নেভো কুলমান লেখেন, “আমরা সন্ত্রাসের ভয়ে ভীত হব না।” দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য তিনি সুইডিশ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদও জানান।

অনলাইনে এক পোস্টে সুইডেনের উপ-প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “এমন ঘটনায় তিনি শিউরে উঠেছেন। ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ঘৃণা ভয়ঙ্কর পর্যায়ে চলে গেছে। এই সহিংস চরমপন্থার অবসান হতে হবে।”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকটি সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে একটি দৈনিক পত্রিকা বলেছে, বিপজ্জনক বস্তুটি এক হাতগ্রেনেড বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইসরায়েলি দূতাবাসের বেস্টনির ওপরে যেটি ছোড়া হয়েছিল। গ্রেনেডটি দূতাবাস ভবনের কাছে গিয়ে পড়ে।

সূত্র: বিবিসি, রয়টার্স।