একুয়েডরের কারাগারে সহিংসতায় নিহত ১০

দুটি অপরাধী দলের দুই প্রধানকে একটি সর্বোচ্চ নিরাপত্তা কেন্দ্রে সরিয়ে নেওয়ার পর এ সহিংসতা দেখা দেয়।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Nov 2022, 05:26 AM
Updated : 19 Nov 2022, 05:26 AM

একুয়েডরের রাজধানী কিতোর একটি কারাগারে সহিংসতায় অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছে বলে দেশটির কারা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

অপরাধী দলের দুই প্রধানকে একটি সর্বোচ্চ নিরাপত্তা কেন্দ্রে সরিয়ে নেওয়ার পর শুক্রবার এ সহিংসতা দেখা দেয় বলে জানিয়েছে তারা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, দেশটির বিশৃঙ্খল কারাগারগুলোতে সহিংসতা হ্রাস করার লক্ষ্যে কর্তৃপক্ষ বন্দিদের মধ্যে যাদের অপরাধী দলের নেতা বলে বিবেচনা করছে তাদের নতুন একটি সর্বোচ্চ নিরাপত্তা কেন্দ্রে সরিয়ে নেওয়া শুরু করেছে।

কয়েক দশক ধরেই একুয়েডরের কারাগার ব্যবস্থাপনা কাঠামোগত সমস্যায় ভুগছে, কিন্তু ২০২০ সালের শেষ দিক থেকে জেল সহিংসতা বেড়ে গিয়ে অন্তত ৪০০ লোক খুন হয়েছে যা বন্দিদের পরিবারগুলোকে আতঙ্কিত করে রেখেছে।

চলতি মাসের প্রথমদিকে প্রায় ১০০০ বন্দিকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার প্রতিক্রিয়ায় সৃষ্ট দাঙ্গায় অন্তত পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়। এ দাঙ্গার সঙ্গে সম্পর্কিত সহিংসতায় আরও অন্তত দুই বন্দি নিহত হয়।

শুক্রবার টুইটারে একুয়েডরের অ্যাটর্নি জেনারেলের দপ্তর জানায়, রাজধানী এল ইনকা কারাগারে নয় বন্দির মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে তারা। এসএনএআই কারা কর্তৃপক্ষ অন্তত ১০ বন্দির মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে।

অপরাধী দল লোস লোবোসের প্রধান ‘বেরমুদেজ’ এবং আর৭ এর প্রধান ‘আনাচুনদিয়া’কে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার পর সহিংসতা শুরু হয়। কর্তৃপক্ষগুলো জানিয়েছে, কিতো ও সান্তো দোমিঙ্গোর কারাগারগুলোতে সাম্প্রতিক সহিংসতার জন্য এরা দায়ী।

প্রেসিডেন্ট গিয়েরমো লাসো বারবার বলে আসছেন, কারাগারে দাঙ্গা রোধে তার সরকারের নেওয়া উদ্যোগগুলো ব্যর্থ করে দিতে অপরাধী দলগুলো সহিংসতাকে ব্যবহার করছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে মাদক পাচারের ট্রানজিট পয়েন্ট হিসেবে একুয়েডর ব্যবহৃত হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক